শীতে টবে চাষ করুন সবজি


সি নিউজ ডেস্ক: শহর জীবনেও শীতের স্বাদ উপভোগ করতে পারেন। তার জন্য একটু কাজ তো করতেই হবে। সেজন্য কম পরিশ্রমে বাড়ির ছাদ, বারান্দা, কার্নিশে বিভিন্ন আকারের টবে শাক-সবজির চাষ করতে পারেন।

চলুন জেনে নিই ছাদে শাকসবজি চাষের প্রক্রিয়াটি।

টবে আবাদ যোগ্য শাক-সবজি                                                                                                                                                                                                    টমেটো, বেগুন, মরিচ, শশা, ঝিঙ্গা, মিষ্টি কুমড়া, মটরশুঁটি, কলমি শুঁটি, কলমি শাক, লাউ, পুই শাক, পেঁপে, পুদিনাপাতা, ধনেপাতা, থানকুনি, লেটুস, ব্রোকলি এসব টবে ফলানো যেতে পারে।
টবের বীজ তলার মাটি

শাক-সবজির বীজতলার জন্য মাটি হতে হবে ঝরঝরে, হালকা ও পানি ধরে রাখার মতো। মাটি চালুনি দিয়ে চেলে জীবাণুমুক্ত করে নেয়া উত্তম। দুই ভাগ দোআঁশ মাটির সঙ্গে দুই ভাগ পাতশার মিশিয়ে নিয়ে বীজতলার মাটি তৈরি করে নিন। মাটি যদি এটেল হয় তাহলে বীজের অঙ্কুরোদগমের সুবিধার জন্য একভাগ বালি মিশিয়ে হালকা করে নিতে হবে।

সাধারণত এক লিটার ফরমালডিহাইড ৪০ লিটার পানিতে গুলে এই দ্রবণের ২৫ লিটার প্রতি ঘনমিটার মাটিতে কয়েক কিস্তিতে ভিজিয়ে দিতে হয়। এরপর প্রায় দু’দিন চটের কাপড় দিয়ে মাটি ঢেকে রেখে পরে চট উঠিয়ে দিলে মাটি জীবাণুমুক্ত হয়।
 

বীজ বপণ ও পানি সেচ
পূর্বের নিয়মে মাটি হালকা ঝরঝরে করে টবের উপরিভাগ সমতল করে রাখতে হবে। খুব হালকাভাবে বীজ ছড়িয়ে দিতে হয়। এর পর মিহি করে চারা, পাতা পচা সার দিয়ে বীজগুলোকে ঢেকে দিতে হয়। পানি দিতে হবে খুব ছোট ছোট ছিদ্রযুক্ত ঝাজরি দিয়ে। লক্ষ্য রাখতে হবে, পানির ঝাপটায় যাতে বীজের উপর পাতাসারের আবরণ সরে না যায়। বীজ আকারে ছোট হলে সেই ক্ষেত্রে উপর দিয়ে পানি দিলে বীজগুলো পানির ধাক্কায় অঙ্কুরোদগমের ব্যাঘাত ঘটাতে পারে। তাই সব টবের উপর দিয়ে পানি না দিয়ে তলা দিয়ে সেচের ব্যবস্থা করা উচিত।
 

পরিচর্যা
অনেক শাক-সবজির চারা বিভিন্ন প্রকার পাখি, পিঁপড়া, মাকড়শা, নষ্ট করে দেয়। হেপ্টাক্লোর ৪০ পরিমাণ মতো দিয়ে যাবতীয় পিঁপড়া ও মাকড়শা নিবারণ করা যায়। টবের ওপরে তারের বা নাইলনের জাল দিয়ে চারাগুলো পাখির উপদ্রব থেকে রক্ষা করা যাবে। অনেক সময় দেখা যায় টবের মাটি বীজ বপণের পর বিভিন্ন প্রকার আগাছা গজিয়ে থাকে যেগুলো সঙ্গে সঙ্গে নিড়ানি দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে তুলে ফেলতে হবে এবং গাছের গোড়ায় যেন আঘাত না লাগে তা খেয়াল রাখতে হবে। শাক-সবজির টবগুলো অবশ্যই যথেষ্ট আলো-বাতাসপূর্ণ স্থানে রাখা প্রয়োজন।
 

সবজি সংগ্রহ
সময় মতো সবজি সংগ্রহ করা একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজ। সবজি বেশি দিন গাছে না রেখে বেশি পোক্ত না করে নরম থাকতেই তুলে খাওয়া ভালো। তাতে এক দিকে যেমন নরম খাওয়া যায় অপর দিকে ফলন বৃদ্ধিতে ও সাহায্য করা যায়।
তেমন কোনো ঝামেলা ছাড়াই আপনি অল্প খরচে, একটু সময় দিয়ে ছাদে শাকসবজির চাষ করতে পারেন। এতে যেমন আপনার পরিবারের সুস্বাস্থ্য বজায় থাকে, একই সঙ্গে এই ইট-পাথরের নগরে ক্ষণিকের জন্য হলেও সবুজের সংস্পর্শে থাকতে পারবেন।

 

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments