দলীয় পদ হারানোর ভয়ে শপথ নিচ্ছেন না ফখরুল: হানিফ


সি নিউজ ডেস্ক : দলীয় পদ হারানোর ভয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিচ্ছেন না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ নেতা মাহাবুব উল আলম হানিফ।

সোমবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের খুলনা বিভাগীয় নেতাদের সঙ্গে এক বর্ধিত সভায় এই মন্তব্য করেন তিনি।

কারচুপির অভিযোগ ৩০ ডিসেম্বরের ভোট প্রত্যাখ্যান করা বিএনপি দলের নির্বাচিতদের শপথ না নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। এ নিয়ে দফায় দফায় নির্দেশনা দেয়া হয় বিএনপি মহাসচিব ছাড়াও নির্বাচিত পাঁচ এমপিকে। দল থেকে বহিষ্কারেরও হুঁশিয়ারি দেয়া ছিল। কিন্তু এরমধ্যেই ঠাকুরগাঁও-৩ থেকে নির্বাচিত জাহিদুর রহমান শপথ নেয়ায় বিব্রতকর অবস্থার মধ্যে পড়ে দলটির হাইকমান্ড।

শুরুতে জাহিদুরের শপথ নিয়ে কেউ মুখ না খুললেও শনিবার বিএনপি নেতারা বলেন, দুই একজন শপথ নিলে বিএনপির কিছু হবে না। পরে রাতে স্থায়ী কমিটির বৈঠকে জাহিদুরকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত হয়।

স্থায়ী কমিটির বৈঠকের সময় মির্জা ফখরুল ছাড়া বাকি নির্বাচিতদের ফোন করে শপথ না নেয়ার জন্য কড়া নির্দেশ দেয়া হয়। কিন্তু ফখরুল ছাড়া বিএনপির বাকি চার নির্বাচিত সদস্যও শেষ পর্যন্ত শপথ নিতে পারেন বলে শোনা যাচ্ছে৷

দলীয় পদ হারানোর শঙ্কায় মির্জা ফখরুল শপথ নেবেন না এমন মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হানিফ বলেন, যেই দলে কোনো গণতন্ত্র নেই, লন্ডন থেকে পরিচালিত হয়, সেই দলের বিরুদ্ধে গিয়ে শপথ নিলে পদ হারাবেন। মূলত পদ হারানোর ভয়েই মির্জা ফখরুল ইসলাম শপথ নেবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

এ সময় বিএনপির নির্বাচিতদের শপথ নিয়ে সংসদে এসে কথা বলার আহ্বান জানান তিনি। বলেন, ‘আমরা আশা করি আগামী ৩০ তারিখের মধ্যে বিএনপির বাকিরা শপথ নিয়ে জনগণের প্রতি দায়িত্বশীল আচরণ করবেন। প্রকৃতপক্ষে গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হলে শপথ নিয়ে সংসদে এসে কথা বলুন।’

নিজেদের ভুলে বিএনপি বিলুপ্তির পথে এমন মন্তব্য করে হানিফ বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশের জন্য একটি বিষফোঁড়া। এই ফোঁড়া যতদিন থাকবে দেশের বিরুদ্ধে ততদিন ষড়যন্ত্রও থাকবে।

 

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments