কুকুরের মুখ থেকে নবজাতককে বাঁচালেন পুলিশ কর্মকর্তা


সিনিউজ, চট্টগ্রাম: এক নবজাতককে নিয়ে টানাটানি করছিল তিনটি কুকুর। তাই দেখে ছুটে গেলেন মোস্তাফিজুর রহমান। কুকুরের মুখ থেকে নবজাতককে উদ্ধার করে প্রথমে মা ও শিশু হাসপাতাল, পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান তিনি। মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের বাদামতলী মোড়ে।

নবজাতককে বাঁচানো মোস্তাফিজুর রহমান ডবলমুরিং থানায় এসআই হিসেবে কর্মরত। তিনি বলেন, রাতের ডিউটির শেষ ভাগে আক্তারুজ্জামান সেন্টারের সামনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। ওই সময় সড়কের উল্টো দিকে সোনালী ব্যাংকের সামনে দুটি কুকুরকে মারামারি করতে দেখি। আরেকটি কুকুর কিছু একটা নিয়ে টানাটানি করছিল। এগিয়ে গিয়ে দেখি একটা বাচ্চাকে নিয়ে কুকুরগুলো টানাটানি করছে। তখন এক নারীর সাহায্যে বাচ্চাটাকে উদ্ধার করে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে যাই। চিকিৎসকদের পরামর্শে বাচ্চাটিকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। বাচ্চাটি সুস্থ আছে।

সিএমপি’র ডবলমুরিং জোনের সহকারী কমিশনার আশিকুর রহমান বলেন, বাদামতলী মোড়ে জনতা ব্যাংকের সামনে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারী রক্তাক্ত অবস্থায় বসে ছিলেন। আর হাত দিয়ে কুকুরগুলোর দিকে দেখাচ্ছিলেন। ধারণা করা হচ্ছে, সোনালী ব্যাংকের সামনে বাচ্চার জন্ম দিয়ে তিনি উল্টো দিকে চলে যান। তখন কুকুরগুলো নবজাতকের শরীরে লেগে থাকা নাড়ি নিয়ে টানাটানি করছিল।

এসি আশিকুর রহমান আরো বলেন, নবজাতকের সঙ্গে ওই নারীকেও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান এসআই মোস্তাফিজ। তাদের ৩৩ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তারা আগের চেয়ে সুস্থ রয়েছেন। কুকুরের কামড় ওই শিশুটির গায়ে লাগেনি।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments