লাইফস্টাইল

দাঁত ব্রাশ ছাড়াও টুথপেস্টের ভিন্নধর্মী ব্যবহার


সি নিউজ ডেস্ক:  আমরা টুথপেস্ট ব্যবহার করি দাঁত মাজার জন্য। কিন্তু অনেকেই জানেন না দাঁত মাজা ছাড়াও আরো কয়েকটি দারুণ কাজ করা যায় টুথপেস্ট দিয়ে। যেমন? যেমন ধরুন হাত বা ফিডারের গন্ধ দূর করতে, কাপড়ের দাগ তুলতে, নখের যত্নে, এমনকি চুলের যত্নেও। কীভাবে করবেন? আসুন জেনে নেই টুথপেস্টের ভিন্নধর্মী ব্যবহার।
ফিডারে গন্ধ দূর করতে :
বাচ্চাদের দুধ খাওয়ার বোতলে মানে ফিডারে টক গন্ধ হওয়া খুব স্বাভাবিক একটা ঘটনা।কিন্তু টুথপেস্ট থাকলে এই দুর্গন্ধ দূর করা এক নিমিষের ব্যাপার। ফিডারের ভেতরটা টুথপেস্ট দিয়ে খুব ভালভাবে ধুয়ে নিন। তবে অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন যাতে ফিডারের ভেতরে টুথপেস্ট জমা না থাকে।
ব্রণের সমস্যায়:
আপনি যদি ব্রণের সমস্যায় ভুগেন,তাহলে আক্রান্ত স্থানে নন-জেল এবং নন হোয়াইটেনিং টুথপেস্ট লাগিয়ে রাতে ঘুমাতে যান। টুথপেস্ট ব্রণের জলীয় অংশ শুষে নেয় এবং তেল টেনে নেয়।তবে একটা ব্যাপারে সতর্ক না হলেই নয়।আপনার ত্বক টুথপেস্টের ব্যাপারে সংবেদনশীল হতে পারে।তাই প্রথমে ত্বকের ক্ষুদ্র অংশে প্রয়োগ করুন।
পোকা-মাকড়ের কামড়ে :
পোকা-মাকড়ের কামড়ে জ্বালা-পোড়া কমাতে তাৎক্ষণিক টুথপেস্ট দারুণ কাজ দেয়। মশার যন্ত্রণা থেকেও মুক্তি পাবেন টুথপেস্ট ব্যবহার করে।
কাপড়ের দাগ:

যেকোনো কাপড়ের দাগ পেস্ট দিয়ে ওঠানো যায়। এমনকি কার্পেটে দীর্ঘদিনের কালচে দাগের জায়গাটি ব্রাশের আগে পানি আর পেস্ট দিয়ে ঘষে নিন। তার পর ব্রাশ দিয়ে ঘষুন, দেখবেন দাগ উঠে গেছে।
গোসলের পানিতে :
বাথটবে গোসলের পানিকে ফেনিল করতে চান। হাতে পেস্ট নিয়ে পানিতে নিয়ে দুই হাত ঘষাঘষি করলেই বুদ্বুদে ভরে যাবে পানি। এতে চোখ জ্বলে না।
আসবাবের দাগ তুলতে :
পানি বা পানীয়র দাগ থেকে শুরু করে যেকোনো দাগ আসবাবের সৌন্দর্য নষ্ট করে দেয়। এসব স্থানে টুথপেস্ট লাগিয়ে শুকনো কিছু দিয়ে ঘষুন। এভাবে রেখে দিন না শুকানো পর্যন্ত। এর পর মুছে ফেলুন। আসবাব নতুন করে পলিশ করার আগেও একই কাজ করতে পারেন।
গহনা পরিষ্কারে :
সোনা, রূপা, হীরা, জহরত ইত্যাদি ঝাঁ চকচকে হয়ে যাবে টুথপেস্ট দিয়ে ধুয়ে নিলে। এসব গহনায় পেস্ট দিয়ে রাখুন সারা রাত। তার পর সকালে উঠে হালকাভাবে পরিষ্কার করে নিন। তবে মুক্তা পরিষ্কার করবেন না টুথপেস্ট দিয়ে।
বাথরুমের আয়না:
ননজেল টুথপেস্ট দিয়ে আয়না পরিষ্কার করে নেবেন। দেখবেন, ঘণ্টাখানেক শাওয়ার নেয়ার পরও আয়না ঝাপসা হচ্ছে না।
নখের যত্নে :
দাঁত মাজার সময় নখে একটু পেস্ট নিয়ে ঘষা-মাজা করুন। দেখবেন নখগুলো আগের চেয়ে অনেক বেশি চকচক করছেন এবং এর স্বাস্থ্যও ভালো হয়ে যাবে।
আয়রন/ইস্ত্রির দাগ তুলতে :
আয়রন করার সময় যদি ডিসটিল্ড পানিও ব্যবহার করেন, তবুও এর ফোকরগুলোতে কালো দাগ পড়ে যায়। টুথপেস্টে সিলিকা থাকে। তাই এটি দিয়ে আয়রনের ধাতব পাতটি ঘষলে এটি চকচকে হয়ে যাবে।
চুল গোছাতে :
চুলের জেলের মতো পদার্থ রয়েছে টুথপেস্টে। একে বলে ওয়াটার সল্যুবল পলিমার। এলোমেলো চুল গুছিয়ে নিতে যেভাবে জেল ব্যবহার করি, সেভাবেই পেস্ট ব্যবহার করে চুল পরিপাটি করে নিতে পারবেন।
দেয়ালের দাগ:
শিশুরা দেয়ালে আঁকাজোকা করবেই। এ শিল্পকর্ম মুছে ফেলতে টুথপেস্টই ভরসা। ননজেল টুথপেস্ট দিয়ে ভালো করে ঘষুন। পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
জুতা পরিষ্কারে :
অনেক শখ করে কেনা আপনার লেদারের জুতাতে যখন কোন দাগ পড়ে, তখন হয়তো আপনার মনেও দাগ পড়ে।চিন্তা নেই, অল্প একটু টুথপেস্ট পারে তা দূর করতে।দাগ পড়া জায়গাতে টুথপেস্ট লাগান তারপর একটি ভেজা নরম কাপড় দিয়ে সেই জায়গাটি পরিষ্কার করে নিন। দেখবেন আপনার জুতা চকচক করছে।
হাতের দুর্গন্ধ:
মুখের দুর্গন্ধ যেমন দূর করে, তেমনি হাতেরও। তীব্র ও কটু গন্ধযুক্ত দুর্গন্ধ থেকে তাত্ক্ষণিক মুক্তি পেতে টুথপেস্ট দিয়ে হাত ধুয়ে নিন।

Admin

0 Comments

Please login to start comments