দেশজুড়ে

সাতক্ষীরায় বৃদ্ধা শাশুড়িকে বেধে নির্যাতন


সি নিউজ, সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলায় বৃদ্ধা শাশুড়িকে বেঁধে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। পুলিশ বৃদ্ধার ছেলে ও বউমাকে আটক করেছে।
শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বড়কুপট গ্রাম থেকে পুলিশ তাদের আটক করে।
আটকরা হলেন— ওই গ্রামের মৃত তৈলক্ষ্য মন্ডলের ছেলে প্রভাষ মন্ডল ও তার স্ত্রী আশা রানী।
স্থানীয়রা জানান, বড়কুপট গ্রামের মৃত তৈলক্ষ্য মন্ডলের স্ত্রী বৃদ্ধা ফুলবাসী (৮০)কে পায়খানা-প্রসাব করার জন্য প্রায়ই নির্যাতন করেন তার বউমা আশা রানী। এছাড়া তাকে ঠিকমতো খাবারও খেতে দিতেন না।
সম্প্রতি স্থানীয় এক যুবক নির্যাতনের ভিডিওটি ধারণ করেন। ভিডিওটি তার ফেসবুকে পোস্ট করে ‘মা জনম দুখিনী মা, গর্ভধারিণী মা, যে মা ১০ মাস ১০ দিন গর্ভধারণ করে স্বযত্নে রেখেছিলেন। সেই মা যদি এমন বউয়ের পাল্লায় পড়েন? কিন্তু সন্তানের চোখ কি অন্ধ?’ লিখে স্ট্যাটাস দেন।
বিষয়টি পুলিশের দৃষ্টিগোচর হলে দুপুরে পুলিশ গিয়ে ওই বৃদ্ধাকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার কনে। ছেলে-বউমাকে আটক করে।
এ ব্যাপারে শ্যামনগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শংকর জানান, ওই বৃদ্ধার ছেলে-বউমাকে আটক করা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।
তিনি জানান, বৃদ্ধা ফুলবাসী বর্তমানে ভাল আছেন। তার খাবারের ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়েছে।

 

Admin

0 Comments

Please login to start comments