বাংলাদেশ

সবজির দাম কমলেও বেড়েছে মুরগির


সি নিউজ ডেস্ক : গেল কয়েক মাস ধরেই চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সবজি। তবে ঈদের আগে ফিরেছে কিছুটা স্বস্তি। রাজধানীর অধিকাংশ কাঁচা বাজারে বেশিরভাগ সবজি ৩০ টাকা কেজির মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। অথচ রোজার শুরুতেও তা ছিল ৫০ টাকার উপরে।

তবে ঈদে মাংসের চাহিদা বেশি থাকায় মুনাফা লোভী ব্যবসায়ীরা মুরগির দাম বাড়িয়েছে। সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে বেড়েছে ১৫ থেকে ২০ টাকা। তবে ডিম, মাছ, গরু ও খাসির মাংসের দাম রয়েছে অপরিবর্তিত। সেই সঙ্গে অপরিবর্তিত রয়েছে পেঁয়াজ ও মরিচের দাম।

রাজধানীর কারওয়ান বাজার, মিরপুর, কচুক্ষেত, উত্তরা, শান্তিনগর, সেগুনবাগিচা, রামপুরা, মালিবাগ হাজীপাড়া, খিলগাঁও অঞ্চলের বিভিন্ন বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, ঢেঁড়সের কেজি ২০-৩০ টাকা, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০-৪০ টাকা। ঝিঙে পাওয়া যাচ্ছে ২৫-৩০ টাকার মধ্যে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০-৫০ টাকা কেজি। সপ্তাহের ব্যবধানে দাম কমার তালিকায় আরো রয়েছে- শিম, করলা, কাকরোল, পটল, বেগুন। গত সপ্তাহে ৪০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া শিম বাজার ভেদে পাওয়া যাচ্ছে ২৫-৩৫ টাকায়। পটল বিক্রি হচ্ছে ২০-৩০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিল ৩৫-৪০ টাকা।

গত সপ্তাহে ৪০-৫০ টাকা কেজি বিক্রি হওয়া করলার দাম কমে ২৫-৩০ টাকায় নেমে এসেছে। কাকরোল বিক্রি হচ্ছে ৩০-৪০ টাকা কেজি, যা গত সপ্তাহে ছিল ৫০-৬০ টাকা। বেগুনের কেজি পাওয়া যাচ্ছে ৩৫-৪০ টাকার মধ্যে, যা গত সপ্তাহে ছিল ৪০-৫০ টাকা। বরবটির কেজি আগের সপ্তাহের মতো ৪০-৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে।

দাম অপরিবর্তিত থাকা অন্য সবজিগুলোর মধ্যে ধুন্দুল ৪০-৫০ টাকা, শসা ২০-৩০ টাকা, পাকা টমেটো ২৫-৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। তবে সপ্তাহের ব্যবধানে অপরিবর্তিত রয়েছে পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচের দাম। পেঁয়াজ গত সপ্তাহের মতো খুচরা বাজারে ২৫-৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। আর পাইকারিতে পেঁয়াজের পাল্লা (৫ কেজি) বিক্রি হচ্ছে ১১৫-১২০ টাকা। কাঁচা মরিচের পোয়া (২৫০ গ্রাম) বিক্রি হচ্ছে ১৫-২০ টাকা।

অপর দিকে মুরগির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, দাম বেড়েছে লাল লেয়ার, কক ও দেশি মুরগির। লাল লেয়ার মুরগির দাম বেড়েছে কেজিতে ৫০ টাকা পর্যন্ত। আর দেশি মুরগির দাম প্রতি পিসে বেড়েছে ১০০ টাকা, কক এর দাম বেড়েছে পিস ৫০ টাকা। মুরগির মাংসের দাম বাড়লেও গরু ও খাসির মাংসের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

তবে অপরিবর্তিত রয়েছে গরু ও খাসির মাংস এবং ডিমের দাম। গরুর মাংস বাজার ভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫২৫-৫৫০ টাকা কেজি। আর খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৭৫০-৮৫০ টাকা কেজি। আর ডিমের ডজন বিক্রি হচ্ছে ৯০-৯৫ টাকা। এদিকে কয়েক মাস ধরে চড়া দামে বিক্রি হওয়া মাছের দাম এখনো বেশ চড়াই রয়েছে।

তেলাপিয়া আগের মতো বিক্রি হচ্ছে ১৬০-১৮০ টাকা কেজি। পাঙাশ বিক্রি হচ্ছে ১৫০-১৮০ টাকা কেজি। রুই ২৮০-৬০০ টাকা, পাবদা ৬০০-৭০০ টাকা, টেংরা ৫০০-৮০০ টাকা, শিং ৫০০-৬০০ টাকা এবং চিতল মাছ বিক্রি হচ্ছে ৬০০-৮০০ টাকা কেজি।


 

Admin

0 Comments

Please login to start comments