দেশজুড়ে

সবচেয়ে সাশ্রয়ী এবং পরিবেশবান্ধব এয়ার কন্ডিশনার এসি উদ্ভাবন করলো শরীফুল


সি ‍নিউজ, টাঙ্গাইল : বর্তমানে ১ টন এসিতে যেখানে প্রায় ২ হাজার ওয়াটের বিদ্যুৎ প্রয়োজন সেখানে তার উদ্ভাবিত যন্ত্র মাত্র ১৫০ ওয়াট বিদ্যুতের মাধ্যমেই চলবে সিএফসি ছাড়াই।  টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে শরীফুল ইসলাম নামে এক কলেজছাত্র পৃথিবীর সবচেয়ে সাশ্রয়ী এবং সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব এয়ার কন্ডিশনার (এসি) উদ্ভাবনের দাবি করেছেন।  শনিবার দুপুরে মির্জাপুর প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তার উদ্ভাবিত পরিবেশবান্ধব এসির প্রদর্শন করেন তিনি।  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে শরীফুল ইসলাম বলেন, "আমার উদ্ভাবিত যন্ত্রটি পৃথিবীর সবচেয়ে সাশ্রয়ী এবং সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব। এটি ক্ষতিকারক সিএফসি গ্যাস ছাড়াই কাজ করে। তাই এটি দূষণমুক্ত। একই সাথে এই এসি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ীও।"

"বর্তমান বাজারে পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর সিএফসি গ্যাস ব্যবহার করে এসি তৈরি করা হয়। এই সিএফসি বায়ুন্ডলের ওজন স্তরের ক্ষতি করছে। ফলে ক্যান্সারের মতো রোগব্যাধির বিস্তার আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। এসবের প্রেক্ষিতেই এই এসি বানানোর সিদ্ধান্ত নিই", যোগ করেন শরীফুল।  তিনি আরো দাবি করেন, বর্তমানে ১ টন এসিতে যেখানে প্রায় ২ হাজার ওয়াটের বিদ্যুৎ প্রয়োজন সেখানে তার উদ্ভাবিত যন্ত্র মাত্র ১৫০ ওয়াট বিদ্যুতের মাধ্যমেই চলবে। এতে শতকরা ৯০ভাগ জ্বালানী সাশ্রয় হবে।  শরীফুল তার উদ্ভাবিত এসির নাম রেখেছেন শরীফ পিউর কুলিং টেকনোলজি, সংক্ষেপে এসপিসিটি।  তিনি আরো জানান, ২০১৭ সাল থেকে তিনি এই পরিবেশবান্ধব এসি বানানোর কাজ শুরু করেন। এখন তার এই আবিস্কার প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেওয়ার ইচ্ছা রয়েছে বলেও জানান তিনি।  প্রসঙ্গত, শরীফুলের বাড়ি টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বহুরিয়া ইউনিয়নের চান্দুলিয়া গ্রামে। তিনি এ বছর টাঙ্গাইলের সরকারি সা’দত কলেজ থেকে গনিত বিভাগে চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা দিয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য (এমপি) একাব্বর হোসেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সম্পাদক তাহরীম সীমান্ত, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি  সাদ্দাম হোসেন ও মির্জাপুর পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াকিল আহমেদ ও শরীফুলের সহপাঠিরা।  এসময় এমপি একাব্বর হোসেন প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত পৌঁছানোর ব্যাপারে শরীফুলকে সবরকমের সহযোগিতার আশ্বাস দেন। 

 

Admin

0 Comments

Please login to start comments