খেলাধুলা

লিভারপুল ম্যাচের আগে এমবাপে-নেইমার ফিটনেস নিয়ে আশাবাদী পিএসজি


সি নিউজ: এমনিতেই প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) নিয়ে মাঠের বাইরে বিতর্কের শেষ নেই। তার উপর লিভারপুলের বিপক্ষে আসন্ন চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে তাদের চিন্তার কেন্দ্র বিন্দুতে উঠে এসেছে কিলিয়ান এমবাপে ও নেইমারের ফিটনেস। আজ বুধবার অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচটি। ‘সি’ গ্রুপের তৃতীয় স্থানধারী হিসেবে প্রাক দেস প্রিন্সেসে মাঠে নামবে পিএসজি। গত আসরের রানার্স-আপদের কাছে তারা যদি পরাজিত হয় এবং নিজেদের মাঠে রেড স্টার বেলগ্রেডের বিপক্ষে নেপোলি যদি জয় পায়, তাহলে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে কাতারি মালিকের দলটিকে। গত আসরে শেষ ষোল থেকে বিদায় নেয়া পিএসজির অভিলাস এবার অনেক উঁচুতে। এমন অবস্থায় যদি গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হয় তাহলে দলটির অবস্থা যে কি হবে সেটি ভাবাই যাচ্ছে না। চলতি গ্রীস্মে থমাস টাসেল পিএসজির প্রধান কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর এখনো পর্যন্ত ঘরোয়া ফুটবলের সবকটি ম্যাচেই জয়লাভ করেছে। তবে ইউরোপীয় আসরে তাদের পারফর্মেন্স খুবই হতাশাজনক। নেপোলির সঙ্গে দুই ম্যাচেই ড্র করার পর গত সেপ্টেম্বরে লিভারপুলের কাছে ৩-২ গোলের পরাজয় তাদেরকে খাদের কিনারায় পৌছে দিয়েছে। অপরদিকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সর্বশেষ সাত ম্যাচের মধ্যে শুধু মাত্র রেড স্টারের বিপক্ষে একমাত্র জয়টি লাভ করেছে পিএসজি। গত মাসে তারা ৬-১ গোলে জয়লাভ করে রেড স্টারের বিপক্ষে। পিএসজির অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা ক্লাবের ওয়েবসাইটকে বলেন, ‘লিভারপুলকে হারাতে হলে আমাদেরকে খুব ভাল খেলতে হবে। ওই দলটির বিপক্ষে গতানুগতিক পারফর্মেন্স যথেষ্ট নয়। আমাদেরকে শীর্ষ পর্যায়ের খেলার জন্য সঠিকভাবে প্রস্তুত হতে হবে। কারণ এটি হচ্ছে আমাদের জন্য টিকে থাকার লড়াই।’ কিন্তু জার্গেন ক্লাপের দলের বিপক্ষে আসন্ন ম্যাচের আগে বিশ্বের সবচেয়ে দামী দুই খেলোয়াড়কে বাইরে রেখে তারা কি আসলেই পরিপুর্নভাবে প্রস্তুত? গত সপ্তাহে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে অংশ নিতে গিয়ে ইনজুরির কবলে পড়েছেন নেইমার ও এমবাপে। শনিবার সাইডলাইনে বসেই টুয়ালোসের বিপক্ষে ১-০ গোলে জয় পাওয়া ঘরোয়া লীগের ম্যাচটি উপভোগ করেছেন তারা। চলতি মৌসুমে দুই জনেই আদায় করেছেন ১৩টি করে গোল। সতীর্থ এডিনসন কাবানি করেছেন ১০ গোল। সুতরাং দলের মধ্যে তাদের প্রভাবই যে বেশী সেটি নিশ্চিত। এদিকে চলতি সপ্তাহে দুই তারকার অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে আশাবাদী কোচ টাসেল। তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন তারা সুস্থতার দিকে এগুচ্ছে। আমাদের হাতে এখনো কিছু সময় রয়েছে। আমার মনে হয় তারা মাঠে নামতে পারবে।’ এই মুহূর্তে গ্রুপর পয়েন্ট টেবিলে লিভারপুল ও নেপোলির চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে পিএসজি। আগামী মাসে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ খেলতে বেলগ্রেড সফরের আগেই জয় নিয়ে নিজেদের চাপমুক্ত করতে চায় তারা। বড় দিনের আগেই যদি পিএসজি চ্যাম্পিয়ন্স লীগ থেকে বাদ পড়ে যায় তাহলে সেটি হবে ক্লাবটির জন্য একটি বড় বিপর্যয়। এমনিতেই উয়েফার ‘ফিনান্সিয়াল ফেয়ার প্লে’ রেজুলেশন অবমাননার অভিযোগ রয়েছে ক্লাবটির বিরুদ্ধে।
তবে পিএসজির জন্য সুখবর হচ্ছে হাঁটুর ইনজুরির কারণে দীর্ঘ ছয় মাস বিশ্রাম কাটিয়ে মাঠে ফিরেছেন ব্রাজিলীয় তারকা দানি আলভেস। তার সহায়তা নিয়েই নিজেদের মাঠে নজকাড়া রেকর্ডকে আরো সমৃদ্ধ করতে চায় পিএসজি। সাত বছর আগে কাতারি মালিকানাধীন হবার পর এই ক্লাবে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে পিএসজির বিপক্ষে জয়ের রেকর্ড রয়েছে শুধুমাত্র বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদের। সুতারং সেখানে লিভারপুলকে বিশাল চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে। তার উপর আবার ক্লপের অধীনস্ত দলটি এনফিল্ডের বাইরে গিয়ে সর্বশেষ চার ম্যাচের সবকটিতেই পরাজিত হয়েছে। এবারের মৌসুমে অবশ্য প্রিমিয়ার লীগে সেরা সুচনাটি করেছে লিভারপুল। গত শনিবার লীগের সর্বশেষ ম্যাচে ওয়াটফোর্ডকে ৩-০ গোলে হারিয়েছে তারা। ক্লাবের ওয়েবসাইটকে জাদরান সাকিরি বলেছেন,‘ প্যারিসে আমরা কঠিণ একটি ম্যাচ খেলতে যাচ্ছি। এই ম্যাচটি দিয়েই প্রমনিত হবে আমরা দল হিসেবে কেমন। জয়ের লক্ষ্য নিয়েই আমরা সেখানে যাচ্ছি। ’

Admin

0 Comments

Please login to start comments