খেলাধুলা

রোনালদো ২০২০ সালেই অবসর নিতে পারেন


সিনিউজ: জুভেন্টাস তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ফুটবল থেকে অবসর নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন। তবে ঠিক কবে তা না জানালেও সেটা আগামী বছরও (২০২০) হতে পারে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন।

৩৪ বছর বয়সেও ফুটবল মাঠ সমানতালে মাতিয়ে যাচ্ছেন রোনালদো। গত মৌসুমেও সবমিলিয়ে ৪৩ ম্যাচে ২৮ গোল করেছেন। ‘তুরিনের বুড়ি’দের ‘সিরি আ’ জয়ে তার অবদান ছিল সবচেয়ে বেশি। ফলে সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও রিয়াল মাদ্রিদ তারকা এখন তিনটি ভিন্ন ভিন্ন দেশের ঘরোয়া লিগ জেতার রেকর্ড গড়েছেন। 

ক্যারিয়ারে অজস্র অর্জনের স্বস্তি নিয়েই অবসর নিতে পারবেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো। ঠিক কখন তা তিনি নিজেও নিশ্চিত নন, তবে খুব বেশিদিন যে খেলবেন না তা ঠিকই জানিয়ে দিলেন। যদিও এসব নিয়ে ভাবতে চান না এই পর্তুগিজ উইঙ্গার।

মঙ্গলবার (২১ আগস্ট) পর্তুগিজ টেলিভিশন চ্যানেল ‘টিভিআই’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রোনালদো বলেন, ‘আমি এটা (অবসর) নিয়ে ভাবি না। হয়ত আগামী বছরই আমার ক্যারিয়ার শেষ করতে পারি...কিন্তু আমি ৪০ কিংবা ৪১ বছর বয়স পর্যন্তও চালিয়ে যেতে পারি। আমি জানি না। আমি প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করতে চাই। এটা দারুণ উপহার এবং এটাকে উপভোগ করা জারি রাখতে চাই।’

অসংখ্য ব্যক্তিগত অর্জন ছাড়াও, পাঁচটি চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা (৪টি রিয়াল আর ১টি ম্যানইউ’র হয়ে), ৩টি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা, ২টি লা লিগা ও ১টি সিরি আ’র শিরোপা জিতেছেন রোনালদো। তবে এখনও শিরোপা ক্ষুধা কমেনি তার। জিততে যান আরও। 

নিজের রেকর্ডসংখ্যক শিরোপা জয়ের কীর্তি নিয়ে গর্বিত রোনালদো নিজেই প্রশ্ন করেন, ‘আমার মতো এর রেকর্ড অন্য কোনো ফুটবলারের আছে কি? আমি মনে করি না আমার চেয়ে বেশি রেকর্ডের মালিক আর কেউ আছে।’

কিছুদিন আগেই নিজেকে মেসির চেয়ে সেরা বলে দাবি করেছিলেন রোনালদো। ‘ডিএজেডএন’র সিরিজ ‘দ্য মেকিং অব’র জন্য দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে রোনালদো বলেন, ‘মেসির সঙ্গে আমার সবচেয়ে বড় পার্থক্য হলো আমি ভিন্ন ভিন্ন ক্লাবের হয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছি। আমি চ্যাম্পিয়নস লিগের টানা ছয় মৌসুমে শীর্ষ গোলদাতা ছিলাম।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের হিসাবে নিজেকে এগিয়ে রাখলেও মেসির প্রশংসা করতে অবশ্য কার্পণ্য করেননি পর্তুগিজ তারকা, ‘মেসি অসাধারণ খেলোয়াড়, যাকে শুধু ব্যালন ডি’অর জেতার জন্য নয় বরং আমার মতোই বছরের পর বছর শীর্ষ পর্যায়ের খেলোয়াড় হিসেবে অবস্থান ধরে রাখার জন্যও মনে রাখা হবে।’

‘আমি প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে জেগে ওঠি এই আইডিয়া নিয়ে যে, টাকা কামাতে নয়, আমাকে আরও বেশি সাফল্য পেতে হলে বেশি বেশি অনুশীলন করতে হবে। ঈশ্বরকে ধন্যবাদ যে আমার অর্থের অভাব নেই, তাই আমি যা চাই তা হলো ফুটবলের ইতিহাসে স্থায়ী আসন।’

নিজ মুখে না বললেও রোনালদো এরইমধ্যে ফুটবল ইতিহাসে নিজের আসন স্থায়ী করে ফেলেছেন। এখন সেই আসনকে আরও সাজানা-গোছানোর কাজটাই করে যাচ্ছেন আধুনিক যুগের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার।

Admin

0 Comments

Please login to start comments