খেলাধুলা

রাশিয়া বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন দলের নাম ঘোষণা!


সি নিউজ : একটার পর একটা সঠিক ভবিষ্যতবাণী করে জার্মানির সুপার কম্পিউটার এবার কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব শুরুর আগে জানিয়ে দিল, রাশিয়া বিশ্বকাপে টিকে থাকা আটটা দেশের কাপ জয়ের সম্ভাবনা কতটা।

তার আগে দেখে নেওয়া যাক এবার কোয়ার্টার ফাইনালের ক্রীড়াসূচিঃ-

৬ জুলাই:

ফ্রান্স বনাম উরুগুয়ে (রাত ৮টা)

ব্রাজিল বনাম বেলজিয়াম (রাত ১২টা)

৭ জুলাই

ইংল্যান্ড বনাম সুইডেন (রাত ৮টা)

রাশিয়া বনাম ক্রোয়েশিয়া (রাত ১২টা)

এবার দেখে নেওয়া যাক কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা দেশগুলির মধ্যে কোন দলের বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভবনা কতটা-

এক. রাশিয়া ২ শতাংশ: প্রি-কোয়ার্টারে রাশিয়ার হাতে অঘটনের শিকার হয় ২০১০ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়ন স্পেন। স্বাগতিক রাশিয়ার কাছে পেনাল্টি শ্যুটে ৪-৩ ব্যবধানে পরাজিত হয়ে নক আউট থেকেই ছিটকে পড়লো স্পেন। নির্ধারিত ৯০ মিনিট ১-১ গোলে সমতা। খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। ১২০ মিনিটের খেলা সমতায় থাকার পর টাইব্রেকারে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিলো ২০১০ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা।

দুই: সুইডেন ৪ শতাংশ: প্রি-কোয়ার্টার ফাইনালে প্রায় প্রতিটি বিভাগেই সুইডেন থেকে এগিয়ে ছিল সুইজারল্যান্ড। কিন্তু শেষ হাসির জন্য যা দরকার, তাই-ই করে দেখাতে পারলো না তারা। যেটি করে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে গেল সুইডেন। মানে সুইসদের বিপক্ষে এমিল ফোর্সবার্গের একমাত্র গোলে ১-০ ব্যবধানে জিতে ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপের পর আবারও শেষ আটে উঠলো সুইডেন।

তিন. উরুগুয়ে ৬ শতাংশ: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগালকে বিদায় করে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল উরুগুয়ে। কাভানির জোড়া গোলে ২-১ এ শেষ ষোলোর বাধা পেরোল দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। উরুগুয়ে প্রথমে এগিয়ে গেলেও পর্তুগাল সবার আগে সুযোগ তৈরি করে।

চার. ইংল্যান্ড ১০ শতাংশ: টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে কলম্বিয়াকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। ম্যাচটি নির্ধারিত ৯০ মিনিটেই জিতে নিতে পারতো ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ইয়েরি মিনার গোলে একেবারে শেষ মুহূর্তে বিশ্বকাপ বিদায়ের হাত থেকে বেঁচে যায় কলম্বিয়া। নির্ধারিত সময় শেষে রেফারি যখন আরো ৬ মিনিট যোগ করেন, ঠিক ৩ মিনিট পরেই কর্ণার থেকে পাওয়া বলে হেডের মাধ্যমে দলকে ১-১ ব্যবধানে সমতায় ফেরান ইয়েরি মিনার।

পাঁচ. ক্রোয়েশিয়া ১২ শতাংশ: বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম নাটকীয় টাইব্রেকারের সাক্ষী হলো রাশিয়ার নভগরদ স্টেডিয়াম। নির্ধারিত সময়ের খেলা ১-১ সমতায় থাকলে ম্যাচ গড়ায় টাইব্রেকে। সেখানেও চলে নাটক।দু দলের ফুটবলারই তাদের প্রথম শট থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন। পরবর্তী দুটি শটে ঠিকই গোল করে ২-২ সমতায় থাকে। চতুর্থ শটে গিয়ে আবার পেনাল্টি মিস করে বসে দু দলের ফুটবলার। কিন্তু শেষ শটে এসে আর সতীর্থদের ভুলের পুনরাবৃত্তি করেননি ইভান রাকিতিচ। পঞ্চম শট ডেনমার্কের ইয়ার্গেনসেন মিস করলেও ঠিকই গোল করে ক্রোয়েশিয়াকে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে তোলেন রাকিতিচি।

ছয়. বেলজিয়াম ১৬ শতাংশ: কি অসাধারণ এক ম্যাচ! কি দুর্দান্ত আক্রমণ আর সেভ দেখাল বেলজিয়াম-জাপান! ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে দুই দলই অসামান্য আক্রমণ দেখিয়ে গোলের দেখা যেমন পেয়েছে, তেমনি দুই দলের দুই গোলরক্ষক অসাধারণ কিছু সেভ দেখিয়ে ম্যাচের উত্তেজনা বাড়িয়ে দিয়েছেন। আক্রমণ-প্রতি আক্রমণ মিলিয়ে অসাধারণ এক ম্যাচ। তবে নির্ধারিত সময়ের ৪ মিনিট তথা শেষ বাঁশি বাজার মাত্র কয়েক সেকেন্ড আগে নাসের শাদলির গোলে ৩-২ ব্যবধানে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখল বেলজিয়াম। আর পুরো ম্যাচ দারুণ খেলেও শেষ ষোল থেকেই বিদায় নিলো জাপান।

সাত. ফ্রান্স ২০ শতাংশ: বিমর্ষ মেসি। ডাগ আউটে তখনো পায়চারী করছেন কোচ হোর্হে সাম্পাওলি। স্কোর লাইন ফ্রান্স ৪-৩ আর্জেন্টিনা। ৩২ বছরের বিশ্বকাপ খরাকে ৩৬-এ নিয়ে গেল আর্জেন্টিনা। পারলো না আর্জেন্টিনা, পারলেন না মেসি। জাতীয় দলের হয়ে আরো একবার বড় টুর্নামেন্ট থেকে শূন্য হাতে ফিরতে হলো মেসিকে। বিশ্বকাপের শুরু থেকেই এবারের ফ্রান্স দলকে ধরা হচ্ছিল বিশ্বকাপ জয়ের অন্যতম দাবিদার। দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে এসেই ফ্রান্স প্রমাণ করলো কেন তারা শিরোপার অন্যতম দাবিদার। মেসির আর্জেন্টিনাকে গুনে গুনে ৪ গোল দিয়েছে ফ্রান্সের তরুণ প্রতিভাবান ফুটবলাররা। এমবাপ্পে একাই করেছেন জোড়া গোল।

এক. ব্রাজিল ৩০ শতাংশ: হট ফেভারট হয়ে এবারের বিশ্বকাপে নেমেছে ব্রাজিল, জার্মানি, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল। সবার বিদায়ে ব্রাজিলের খেতাবের রাস্তা চওড়াই আছে। পাশাপাশি নেইমাররা দারুণ খেলছেন। বিশ্বকাপ হয়ত কথা বলবে নেইমারের পক্ষে।

Admin

0 Comments

Please login to start comments