লাইফস্টাইল

যেসব নিয়ম মানলে প্রেম টিকবে আজীবন


সি নিউজ ডেস্ক : একটা সম্পর্ককে সফল করতে হলে দু’জনে মিলে সে দায়িত্ব নিতে হয়। সুন্দর সম্পর্ক গড়ে তুলতে পরস্পরের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো দরকার। পাশাপাশি সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে হলে পারস্পরিক সম্মান আর বিশ্বাসের কোনও বিকল্প নেই। দীর্ঘ দাম্পত্যের চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা খুব সহজ কথা নয়।

কিন্তু যদি দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্কের পাশাপাশি একটা বন্ধুত্বের টান থাকে, তা হলেই লক্ষ্যটা সহজ হয়ে যায়। এছাড়া, ব্যক্তিজীবনে যত ব্যস্ততাই থাক, দিনের শেষে পরস্পরের জন্য খানিকটা একান্ত সময় বরাদ্দ রাখুন। সারাদিনের ক্লান্তি কাটিয়ে ঝরঝরে হয়ে উঠতে পারবেন, সম্পর্কেও আসবে নতুন জোয়ার!

তুচ্ছ কারণে সঙ্গীর সঙ্গে যে ঝগড়াগুলো হয়েছে, সেগুলো শুধরে নিয়ে সম্পর্কে বাঁচিয়ে রাখুন-

১. সঙ্গীকে নিজের হাতের পুতুল ভেবে নেবেন না। আপনার সঙ্গী আপনার সব কথা, সব দাবিদাওয়া মেনে নেন মানে এই নয় যে তাকে ইচ্ছেমতো ম্যানিপুলেট করবেন! তার ইচ্ছেগুলোকে সম্মান করুন, পাশে থাকুন। সম্পর্ক আজীবন মজবুত থাকবে।

২. ফোন ঘাঁটবেন না। অপরের ফোন ঘাঁটা মানে তার ব্যক্তিগত স্পেসে জোর করে ঢুকে পড়া, যেটা কোনও মতেই সমর্থনযোগ্য নয়!

৩. সৎ থাকুন। আপনি যা নন, সেটা দেখানোর দরকার নেই। খোলা মনে কথা বলুন, কোনও নকল কিছু করতে যাবেন না! সুস্থ সম্পর্কের গোড়ার কথাই হল প্রাণ খোলা মনোভাব।

৪. কোনও তুলনায় যাবেন না। মনে রাখবেন আপনি ভালোবাসতে এসেছেন, প্রতিযোগিতা করতে নয়। নিজের সঙ্গীকে অন্য পুরুষ বা নারীর সঙ্গে তুলনা করবেন না। কোনও সুস্থ সম্পর্ক এভাবে বাঁচতে পারে না!

৫. মিথ্যে এড়িয়ে চলুন। নিরীহ মিথ্যুককে কিন্তু চলবে না! আমরা প্রথমে একটা মিথ্যে বলি, তারপর সেটাকে ঢাকতে আরও মিথ্যে বলতে হয়। কাজেই ও পথ এড়িয়ে যান।

৬. ঘ্যানঘ্যান করবেন না। সারাক্ষণ সঙ্গীর সঙ্গে সেঁটে থাকার চেষ্টা করবেন না। একই বিষয় নিয়ে ঘ্যানঘ্যান করাও বন্ধ করুন। আপনাকে বাদ দিয়েও আপনার সঙ্গীর একটা জীবন আছে, সেটা মেনে নিন। একইভাবে নিজেরও একটা ব্যক্তিগত স্পেস তৈরি করে নিন।

৭. রাগ পুষে রাখবেন না। সঙ্গীর কোনও আচরণে রাগ হতেই পারে, কিন্তু সেটা পুষে রাখা কাজের কথা নয়! দরকারে ফাটাফাটি ঝগড়া করুন। মনের ভিতরের ক্ষোভ বেরিয়ে গেলে সম্পর্ক ফের ঝলমলে হয়ে উঠবে।

৮. একসঙ্গে সময় কাটান। একটা সফল সম্পর্কের মূল কথা হল পরস্পরকে যতটা সম্ভব সময় দেওয়া। যে কাজগুলো দু’জনেই করতে ভালোবাসেন বা করার ইচ্ছে আছে, তা শুরু করে দিন। এমন কোনও শখ বেছে নিন যা আপনাদের পরস্পরের কাছাকাছি থাকতে সাহায্য করবে।

৯. সোশাল মিডিয়ায় থাকার সময় কমিয়ে দিন। প্রতি মুহূর্তে অনলাইন থাকার প্রবণতা আপনাদের সময় কেড়ে নিচ্ছে। তাই একসঙ্গে থাকার সময় সোশাল মিডিয়ায় চোখ রাখবেন না।

১০. ছোটখাটো ব্যাপারে ঝগড়া নয়। মাঝেমধ্যে ঝগড়া হলে সম্পর্কের বাঁধনই মজবুত হয়, এ কথা সত্যি। কিন্তু সারাক্ষণ যদি খিটিমিটি লেগেই থাকে, তা হলে কিন্তু সম্পর্কে বড়োসড়ো আঘাত লাগতে পারে। বেশি ঝগড়া করবেন না, অপ্রয়োজনীয় মনোমালিন্য এড়িয়ে চলুন। বরং চেষ্টা করুন যতটা সম্ভব বন্ধুত্বপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্তে আসার।

১১. পরস্পরের প্রশংসা করুন। ছোট্ট প্রশংসাসূচক কথা, একটু আদর, একটু শারীরিক স্পর্শ সম্পর্ককে পোক্ত করতে সাহায্য করে। দীর্ঘদিন একসঙ্গে থাকতে থাকতে এই ছোটখাটো ব্যাপারগুলো আমরা ভুলে যাই।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments