রাজনীতি

মোদীকে তারেকের অভিনন্দন; বিএনপির সাথে বন্ধুত্ব হবে না: আ.লীগ


সি নিউজ ডেস্ক : টানা দ্বিতীয় মেয়াদে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসায় অভিনন্দন বার্তা দিয়েছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান। কিন্তু আওয়ামী লীগ মনে করে, ভারতের সাথে বিএনপির বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক কখনই সম্ভব নয়। কারণ, পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থার পরামর্শে পরিচালিত হয় দলটি।

আর জাতীয় পার্টি বলছে এবার অমীমাংসিত ইস্যুগুলোর সমাধান সহজ হবে। টানা দ্বিতীয়বারের মতো ভারতে মোদী সরকার। আর বাংলাদেশে তৃতীয় দফায় শেখ হাসিনা। ফলে দুদেশের সরকার কিংবা রাজনৈতিক সম্পর্কের মেরুকরণ নিয়ে নতুন করে খুব একটা ভাবতে হচ্ছে না আওয়ামী লীগকে।

বরং আওয়ামী লীগ মনে করছে তিস্তাসহ অমীমাংসিত ইস্যুগুলো সমাধানের কাজ এবার সহজ হবে। অনেকটা একই মতো সরকার ঘনিষ্ঠ জাতীয় পার্টিরও।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, আমরা বিশ্বাস করি যে এবার নতুন উদ্যোগে তিস্তার পানি বন্টন সমস্যার সমাধানটা এবার হবে। জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেন, এবার ভারতের সাথে আমাদের অমীমাংসিত বিষয়গুলি সমাধান অনেক সহজতর হবে।

এদিকে, নরেন্দ্র মোদীকে অভিনন্দন জানিয়ে বার্তা পাঠিয়েছে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। যাতে বলা হয়েছে, দুদেশের সম্পর্ক জোরদারের কথা। সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী তারেক রহমানের অভিনন্দন বার্তা পাঠ করেন। সেখানে নরেন্দ্র মোদীকে পুনরায় নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানান তারেক রহমান।

তিনি বলেন, দুদেশের জনগণের সম্পর্ক জোরদার করে সামনে এগিয়ে যাওয়ার এটাই সবচেয়ে বড় সুযোগ। হানিফ বলেন, ভারতে যে দলই ক্ষমতায় আসুক, তাদের সাথে বিএনপির বন্ধুত্ব কখনোই সম্ভব নয়। কারণ, পাকিস্তানি গোয়েন্দা সংস্থার পরামর্শে পরিচালিত হয় বিএনপি।

ক্ষমতার পালাবদল হোক বা না হোক, বাংলাদেশ ইস্যুতে ভারতের বিদেশনীতি বদলায় না বললেই চলে। তাই, দেশটির নতুন সরকারের কাছ নিজেদের ন্যায্য পাওনা আদায়ে মনোযোগী হওয়ার পক্ষে রাজনৈতিক দলগুলো।

Admin

0 Comments

Please login to start comments