বিনোদন

মূলত চলচ্চিত্রই আমার প্রধান টার্গেট: তৃষ্ণা 


সি নিউজ ডেস্ক : নতুন গান ‘আবেগ’ এর মিউজিক ভিডিও দিয়ে দর্শক শ্রোতাদের দারুণভাবে মাত করেছেন গ্ল্যামারাস মডেল ও অভিনেত্রী সুমাইয়া খন্দকার তৃষ্ণা। জীবক বড়ুয়ার কথায় গানটির সুর করেছেন এবং কণ্ঠ দিয়েছেন গায়ক সৈয়দ অমি নিজেই। সংগীতায়োজন করেছেন ইফতেখারুল লেলিন। গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন রেজা মাহমুদ।

৪ মিনিট ৩৩ সেকেন্ড দৈর্ঘ্য ব্যপ্তির এই মিউজিক ভিডিওতে তৃষ্ণার সঙ্গে মডেলিং শিল্পী সৈয়দ অমিও। চলতি সময়ের আলোচিত গ্ল্যামারাস তরুণী সুমাইয়া খন্দকার তৃষ্ণা বর্তমান সময়ে মিউজিক ভিডিওর পরিচিত একটি নাম। প্রচুর মিউজিক ভিডিওতে নিজের গ্ল্যামার আর ধারালো ফিগারের শারীরিক সৌন্দর্য দিয়ে সবার মন জয় করে নিয়েছেন।

তবে ‘আবেগ’ মিউজিক ভিডিওটির পর আপাতত আর কোনো মিউজিক ভিডিওতে মডেল হচ্ছেন না বলে জানান তৃষ্ণা। তৃষ্ণা জানিয়েছেন মিউজিক ভিডিও না করার সিদ্ধান্তের কারণ। বলেছেন নিজের ক্যারিয়ার পরিকল্পনার কথা। শুরুতেই আলোচিত মডেল অভিনেত্রী তৃষ্ণা ‘আবেগ’ মিউজিক ভিডিওটি নিয়ে কথা বলেন।

তিনি জানান, ‘আবেগ’ গানটির গল্পের সঙ্গে মিল রেখে ভিডিও নির্মাণ করা হয়েছে। চেষ্টা দর্শকদের ভিডিওটি ভালো লাগায় তিনি আনন্দিত। গানটি জেডএস এন্টারটেইনমেন্ট এর ব্যানারে গেল বৃহস্পতিবার ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে।

তৃষ্ণা বলেন, একই দিনে আমার আরও একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। ‘হারিয়েছি তোর প্রেমেতে’ শিরোনামের ওই গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন কলকাতার গায়ক অভিষেক। পার্থ ঘোষাণীর কথায় গানটি সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন বাপ্পা অরিন্দম। গানটির মিউজিক ভিডিওতে আমার সঙ্গে মডেল হয়েছেন চিত্রনায়ক আমান রেজা। আমার এই মিউজিক ভিডিওটিও আলোচিত হয়েছে।

তৃষ্ণা জানান, দেশীয় শোবিজে তার আগমন চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে। এরপর বিলবোর্ড ও টিভিসির মডেল হিসেবে কাজ করার পর তিনি মিউজিক ভিডিওর মডেলিংয়ে আসেন। তার অভিনীত প্রথম ছবির নাম ‘নীল ফড়িং’। এটি পরিচালনা করেছেন ইদ্রিস হায়দার।

ছবিটি সেন্সর শেষে বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। দ্বিতীয় ছবি ‘তবুও বিদায়’ এর শুটিং চলছে। তৃষ্ণা বলেন, ২০১৭ সালে ‘নীল ফড়িং’ এর নায়িকা হিসেবেই আমার মিডিয়া যাত্রা শুরু। দ্বিতীয় ছবিতেও নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করছি। বর্তমানে আরও ৩/৪ টি ছবিতে অভিনয়ের কথা চলছে।

তৃষ্ণার কাছে পাল্টা প্রশ্ন ছিল চলচ্চিত্রে আপনার কাজ বা ব্যস্ততা বাড়ছে বলেই কী মিউজিক ভিডিও না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে চলতি সময়ের উঠতি এই তারকা বলেন, একদম ঠিক ধরেছেন। আমি আসলে চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করার স্বপ্ন নিয়েই মিডিয়ায় এসেছি। আর আমার শুরুটাও চলচ্চিত্র দিয়েই।

সুদর্শনা গ্ল্যামার গার্ল তৃষ্ণা বলেন, মাঝখানে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি নাটকে অভিনয়, বিলবোর্ড, টিভিসিতে মডেল হয়েছি। অল্প সময়ে অনেকগুলো মিউজিক ভিডিওতে কাজ করলাম। নিজেকে কাজের মধ্যে ব্যস্ত রেখে আর চলচ্চিত্রের জন্যে আরও বেশি উপযোগী করে তোলার জন্যেই বসে না থেকে নাটকে অভিনয় ও বিলবোর্ড, টিভিসি, মিউজিক ভিডিওতে মডেলিং করেছি।

তৃষ্ণা জানান, আরএফএল, প্রাণ, মি: নুডুলস, উৎসব বিডি ডট কম এর বিজ্ঞাপনচিত্রে তিনি মডেল হয়েছেন। হয়েছেন বিভিন্ন ব্র্যান্ডেড ফ্যাশন হাউজ এবং কোম্পানির বিলবোর্ড মডেল। তার অভিনীত নাটকগুলো হলো ‘অস্থির মন’, ‘যুবরাজ’, ‘বন্ধুর জন্য’। এগুলোর মধ্যে প্রথমটি সিঙ্গেল এবং বাকি দুটি ধারাবাহিক নাটক।

রাজশাহীর মেয়ে সুমাইয়া খন্দকার তৃষ্ণা জানান, শৈশব থেকেই চলচ্চিত্রের নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে বেড়ে উঠেছেন বলেই নিজেকে ধাপে ধাপে তৈরি করে নিয়েছেন। রাজশাহীতে তিনি ছোটবেলা থেকেই নাচ শিখেছেন। ঢাকায় এসে চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে গড়ে নেওয়ার জন্যে আবার নাচ শিখেছেন। নিজেকে নায়িকার উপযোগী করে গড়ে তোলে তবেই ধারালো ফিগারের সুন্দরী এই তরুণী চলচ্চিত্রের নায়িকা হিসেবে নিজের শোবিজ যাত্রা শুরু করেন।

তৃষ্ণা জানান, মূলত চলচ্চিত্রই তার প্রধান টার্গেট। তিনি বলেন, শৈশব থেকেই আমি চলচ্চিত্রের নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে বড় হয়েছি। এটি আমার স্বপ্নের জায়গা। আমি এই মাধ্যমেই নিজের স্থায়ী কর্মক্ষেত্র হিসেবে দেখতে চাই। আমার বিশ্বাস নিজের শারীরিক সৌন্দর্য, অভিনয় প্রতিভা আর টানা দুই বছর শোবিজে কাজ করার অভিজ্ঞতার কল্যাণে ঠিকই আমার স্বপ্নের জগতে আমি প্রতিষ্ঠা পেতে সক্ষম হবো।

চলচ্চিত্রকে প্রাধান্য দিতেই তৃষ্ণা নতুন করে কোন মিউজিক ভিডিওর কাজ হাতে নিচ্ছেন না। তবে চলচ্চিত্রের কাজের পাশাপশি নাটকে অভিনয় এবং টিভিসি আর বিলবোর্ডের মডেলিং কন্টিনিউ করার ইচ্ছে তার রয়েছে।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments