আন্তর্জাতিক

মার্কিন অভিযানে আইএস প্রধান বাগদাদি নিহত


আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নেতা আবু বকর আল বাগদাদির গোপন আস্তানায় অভিযান চালিয়ে তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এর খবরে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় একটি গোপন আস্তানায় বাগদাদি লুকিয়ে ছিলেন। স্থানীয় সময় শনিবার সিরিয়ার উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকার সেই আস্তানায় মার্কিন বাহিনীর এক অভিযানে বাগদাদি নিহত হয়েছেন।

মার্কিন এক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, দেশটির কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ বাগদাদির অবস্থান শনাক্ত করার পর সেখানে অভিযান চালায় মার্কিন বাহিনী।

অভিযানে নিহত বাগদাদি বলে সন্দেহ করা সেই ব্যক্তির লাশ মার্কিন বাহিনীর হাতে রয়েছে। তবে মৃতদেহের ডিএনএ ও বায়োমেট্রিক পরীক্ষার পর তা বাগদাদির কিনা নিশ্চিত করবে মার্কিন প্রশাসন। ফলে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কোনো ঘোষণা দেওয়া হচ্ছে না।

এর আগেও একাধিকবার বাগদাদিকে হত্যার দাবি করেছিল যুক্তরাষ্ট্র। পরে তা ভুল প্রমাণ হয়। তবে এবারের দাবিটি আগের চেয়ে অনেক জোরালো বলে মনে হচ্ছে। এমনকি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও ঘটনার ইঙ্গিত দিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, এইমাত্র বিশাল বড় কিছু একটা ঘটে গেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা দেবেন বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্টের কার্যালয় হোয়াইট হাউসের সহকারী প্রেস সেক্রেটারি হোগান গিডলে। সেখানে এ বিষয়ে ঘোষণা দেওয়া হতে পারে।

তবে মার্কিন প্রতিরক্ষা সদরদফতর পেন্টাগন এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া জানাতে রাজি হয়নি।

গত পাঁচ বছর ধরে আত্মগোপনে রয়েছেন আইএস নেতা আবু বকর আল বাগদাদি। তিনিই বর্তমানে আইএসের প্রধান নেতা। গত এপ্রিলে আইএসের সংবাদমাধ্যমের শাখা আল ফুরকান একটি ভিডিও প্রকাশ করে। যাতে তাদের নেতা আবু বকর আল বাগদাদিকে দেখা যায়। ২০১৪ সালের পর, গত এপ্রিল মাসেই প্রথম ভিডিও বার্তায় বক্তব্য দিতে দেখা যায় বাগদাদিকে। তাকে শেষবার দেখা গিয়েছিল ইরাকের মসুলে অবস্থিত গ্রেট মসজিদে।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments