বিনোদন

ভালোবাসার এক যুগ


বর্ষা চৌধুরী, বিনোদন প্রতিবেদক: ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে বন্ধুত্বের গল্পটা শুরু। এরপর কেটে যায় ১২টি বছর। বন্ধুত্বের সম্পর্কটা আছে ঠিক আগের মতোই। তাইতো ভালোবাসার এ বন্ধনকে আরও জোরালো করতে উদযাপন করা হলো ক্লোজআপ ওয়ান ‘তোমাকেই খুজছে বাংলাদেশ-২০০৬’র একযুগ। এক যুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে তাদের সেরা ১০ জনের অ্যালবাম বের করা হয়, যার নামকরণ করা হয় ‘ভালোবাসার এক যুগ’। মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে লেকশোর হোটেলে এক যুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে এক উৎসবের আয়োজন করা হয়। সেখানে ক্লোজআপ ওয়ান-১ এর সেরা দশ জনের অ্যালবামের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। উপস্থাপনা করেন দেবাশীষ বিশ্বাস। উৎসবমুখর এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনবিআর-এর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। আরও উপস্থিত ছিলেন কণ্ঠশিল্পী সামিনা, ফাহমিদা নবী, পার্থ বড়ুয়া, কুমার বিশ্বজিৎ, আখি আলমগীর, গীতিকার আসিফ ইকবাল সহ সংগীত জগতের আরও অনেকে। ‘ভালোবাসার এক যুগ’ অ্যালবামে ক্লোজআপ ওয়ান-২০০৬ এর সেরা ১০ শিল্পী গেয়েছেন ১০টি গান। এছাড়াও থাকছে সম্মিলিত কণ্ঠে একটি দেশের গান। আর সবগুলো গানের গীতিকার জামাল হোসেন ও সুর করেছেন মুহিন খান। এক যুগ নিয়ে ২০০৬ এর ক্লোজআপ ওয়ান সেরা সালমা জানান, ক্লোজআপ ওয়ান প্রতিযোগিতার মধ্যে দিয়ে নিজেকে সবার সামনে তুলে ধরার প্রাপ্তিটাই অনেক বড় পাওয়া। এছাড়া ২০০৬ সালে তার মৌলিক গান ছিলো চার থেকে পাঁচটি আর এখন ২০১৯ এ এসে তার মৌলিক গান হয়েছে ১৫০ থেকে ২০০টি। ১০টি গানের সুরকার মুহিন খান বলেন, ‘ভালোবাসা আছে বলেই আজকের এই এক যুগ। ভালোবাসার সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতেই এ অ্যালবামটি বের করা।’ গীতিকার আসিফ ইকবাল বলেন, ‘শিল্পীরা বেচে থাকে তাদের নিজেদের গানের মধ্যে দিয়ে। নিজের তৈরি গান একজন শিল্পীকে ৬০ বছর বাঁচিয়ে রাখে। তাই সবার উচিত আগামী ১২ বছরে যেন অন্তত ছয়টি গান নিজেদের করা গান হয়।’ উল্লেখ্য, ২০০৬ সালে অনুষ্ঠিত হয় সংগীত বিষয়ক প্রতিযোগিতা ক্লোজআপ ওয়ানের দ্বিতীয় আসর। আর সেখান থেকেই বেড়িয়ে আসেন সেরা দশজন প্রতিযোগী সালমা, মুহিন, নিশিতা, রন্টি দাস, কিশোর, পলাশ, পুলক, বাঁধন, সাব্বির ও পুতুলের মতো শিল্পীরা।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments