খেলা

বাংলাদেশকে দিয়েই নতুন ইতিহাস গড়ল নিউজিল্যান্ড


সি নিউজ ডেস্ক : তিন দিনে পরিণত হওয়া ওয়েলিংটন টেস্টের শেষ দিনে বাংলাদেশের সামনে ছিল কঠিন চ্যালেঞ্জ। ম্যাচ বাঁচাতে ব্যাটিং করতে হতো দিনের বেশিরভাগ সময়। কিন্তু নেইল ওয়াগনারের শর্ট বল আর ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ টিকল মাত্র একটি সেশন। তাতে হ্যামিল্টনের পর ওয়েলিংটনেও ইনিংস ব্যবধানে হারের বেদনায় নীল হলো বাংলাদেশ।

সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট নিউজিল্যান্ড জিতেছে ইনিংস ও ১২ রানে। কিউইরা নিশ্চিত করেছে সিরিজ জয়ও। তিন ম্যাচ সিরিজে স্বাগতিকরা এগিয়ে গেছে ২-০ ব্যবধানে। আগামী ১৬ মার্চ থেকে ক্রাইস্টচার্চে শুরু হবে শেষ টেস্ট।

বেসিন রিজার্ভে মঙ্গলবার বাংলাদেশ শেষ দিন শুরু করেছিল ১৪১ রানে পিছিয়ে থেকে। হাতে ছিল ৭ উইকেট। ওয়াগনার ও ট্রেন্ট বোল্টের তোপে পড়ে লাঞ্চের আগেই বাংলাদেশ গুটিয়ে যায় ২০৯ রানে। ওয়াগনার ৫টি ও বোল্ট নেন ৪টি উইকেট। দিনের শুরুটা খারাপ ছিল না বাংলাদেশের। আগের দিন ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর জুটি বাঁধা মোহাম্মদ মিথুন ও সৌম্য সরকার নিরাপদে কাটিয়ে দেন দিনের প্রথম ত্রিশ মিনিটের একটু বেশি সময়।

সৌম্যর বিদায়ে ভাঙে ৫৭ রানের জুটি। বোল্টের অফ স্টাম্পের বাইরের বলে আলগা শটে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ক্যাচ দেন স্লিপে, ব্যক্তিগত ২৮ রানে। মিথুন ফেরেন ফিফটি থেকে ৩ রান দূরে থাকতে, ওয়াগনারের শর্ট বল পুল করতে গিয়ে স্কয়ার লেগে ক্যাচ দিয়ে।

এরপর দ্রুত লিটন দাস আর তাইজুল ইসলামও ফিরেছেন ওয়াগনারের শর্ট বলে। তৃতীয় দিনের খেলা শেষে লিটন বলেছিলেন, ওয়াগনারের শর্ট বলে তেমন কিছুই করার থাকে না। বল ছেড়ে দেয়াটাই একমাত্র উপাই। সেই লিটন এদিন আউট হয়েছেন বাজে শটে, শর্ট বল পুল করতে গিয়ে ক্যাচ দিয়েছেন ডিপ ফাইন লেগে।

মুস্তাফিজুর রহমান এসেই দুই ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন। তবে ইনিংসটা বেশিদূর যায়নি। ১৬ রানে তাকে বোল্ড করেন বোল্ট। একপ্রান্ত আগলে রেখে ফিফটি করা মাহমুদউল্লাহ ফেরেন সঙ্গীর ওভাবে আগ্রাসী হতে গিয়ে, ৬৭ রানে ওয়াগনারের শর্ট বল পুল করে।

লাঞ্চ পিছিয়ে দেয়া হয়েছিল ১৫ মিনিট। নিউজিল্যান্ড নিয়েছে মাত্র ৯ মিনিট। একই ওভারে মাহমুদউল্লাহর পর ইবাদত হোসেনকেও ফিরিয়ে বাংলাদেশের ইনিংসের ইতি টানেন ওয়াগনার। সেই সঙ্গে এই পেসার পূর্ণ করেন ৫ উইকেট। ম্যাচে তার শিকার ৯টি। ইনিংসে ৪টিসহ বোল্ট ম্যাচে নিয়েছেন ৭ উইকেট। তবে দারুণ এক ডাবল সেঞ্চুরির জন্য ম্যাচসেরা হয়েছেন রস টেলর।

চোটের কারণে শেষ দিনে মাঠে নামেননি কেন উইলিয়ামসন। কিউই অধিনায়কের শেষ টেস্টে খেলা নিয়েও শঙ্কা আছে। আরো বড় শঙ্কা অবশ্য বাংলাদেশকে ঘিরে। বৃষ্টির কল্যাণে তিন দিনে নেমে আসা টেস্টও ড্র করতে পারল না। দুই সেশন বাকি থাকতেই হারল ইনিংস ব্যবধানে। শেষ টেস্টেও তো সেই শঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না!

সংক্ষিপ্ত স্কোর: 
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ২১১ ও ২য় ইনিংস: ২০৯
নিউজিল্যান্ড ১ম ইনিংস: ৪৩২/৬ ডিক্লে.।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments