বিনোদন

বলিউডের সেরা আবেদনময়ী নায়িকা নার্গিস ফাখরি


সি নিউজ ডেস্ক : নার্গিস ফাখরিকে বলা হয় বলিউডের সেরা আবেদনময়ী নায়িকা। এমনও বলা হতো, বলিউডে সেরা ফিগার তার। এখন তিনি কী করছেন? নিউইয়র্কে জন্ম নার্গিসের।

বাবা পাকিস্তানের, মা চেক প্রজাতন্ত্রের। নার্গিস তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ দেখেছিলেন মাত্র ছ’বছর বয়সে। এর কিছুদিন পর বাবা মারা যান। সেই সময় থেকেই মায়ের সঙ্গে জীবন সংগ্রাম শুরু। নার্গিসরা তেমন একটা সচ্ছল ছিলেন না।

স্কুলের সময় থেকেই চারু-কারুর প্রতি আগ্রহ ছিল তার। ১৫ বছর বয়সে ক্র্যাফট শিক্ষক হিসাবে কাজ করা শুরু করেন। সামার ক্যাম্পে ছোটদের সিরামিকের কাজও শেখাতেন নার্গিস। সাইকোলজি নিয়ে স্নাতক স্তরে পড়েন।

তৃতীয় বর্ষেই মডেলিংয়ের প্রস্তাব আসে। সেখান থেকেই বিনোদন জগতে প্রবেশ। আমেরিকার সেরা মডেলের পুরস্কারও পেয়েছেন তিনি। পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত কোনো তরুণীর এই তালিকায় থাকা সেই প্রথম।

২০১১ সালে বলিউডে ইমতিয়াজ আলীর ছবি ‘রকস্টার’-এর মাধ্যমে রণবীর কাপুরের বিপরীতে অভিষেক হয় নায়িকার। ২০১৩ সালে ‘মাদ্রাজ ক্যাফে’তে অভিনয় প্রশংসিত হয়েছিল। অভিনয় করেন ‘ম্যায় তেরা হিরো’ ছবিতে। ২০১৫ সালে হলিউডে ‘স্পাই’ ছবিতে দেখা গিয়েছিল। ২০১৬ সালে মুক্তি পায় ‘আজহার’।

বলিউড অভিনেতা উদয় চোপড়ার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন নার্গিস। তবে দীর্ঘ দিনের সম্পর্ক নাকি ভেঙে যায়, তারপরই ইন্ডাস্ট্রি থেকে খানিকটা সরে যান। তবে অ্যাকশন থ্রিলার ‘তোরবাজ’ ছবিতে সঞ্জয় দত্তের সঙ্গে দেখা যেতে পারে তাকে। রেড ভেলভেট থেকে গুলাব জামুন, ক্ষীর- এ সব নার্গিসের প্রিয় খাবার। কিন্তু শরীরচর্চার কারণেই মেদ জমতে দেন না তিনি।

 

Admin

0 Comments

Please login to start comments