জাতীয়

প্রথম পর্যায়ে ১০,৭৮৯ রাজাকারের তালিকা প্রকাশ


বাংলাদেশের স্বাধীনতার বিরোধিতাকারী রাজাকারদের আংশিক তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রথম পর্যায়ে ১০ হাজার ৭৮৯ জনের তালিকা প্রকাশ করেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। এ সময় বীর মুক্তিযোদ্ধাদেরও একটি তালিকা প্রকাশ করেন তিনি।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী বলেন, রাজাকার, আল-বদর ও আল-শামসসহ বেসরকারি স্বাধীনতাবিরোধী সশস্ত্র বাহিনীগুলোর সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের তালিকা এখানে রাখা হয়েছে।

মোজাম্মেল হক বলেন, অন্যদের নামের তালিকা শিগগিরই প্রকাশ করা হবে। তিনি বলেন, একাত্তরে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ২ লাখ ১০ হাজারের বেশি নয়।

রাজাকারের এই তালিকা বিশেষ করে নাম ঠিকানা মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলেও জানান মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী।

জানা গেছে, একাত্তরের রাজাকার বাহিনীর সদস্য হিসেবে যারা ভাতা নিয়েছে বা যাদের নামে অস্ত্র এসেছে, তাদের নাম-পরিচয়, ভূমিকাসহ যেসব তথ্য স্থানীয় প্রশাসন ও পুলিশের গোয়েন্দা সংস্থার কাছে ছিল, সেই তথ্য ধরে করা তালিকাই আজ প্রকাশ করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে এসব তথ্য সংগ্রহ করা হয়। পর্যায়ক্রমে অন্য ঘাতক বাহিনীর সদস্যদের তালিকাও প্রকাশ করা হবে।

কয়েকদিন আগে  মন্ত্রী জানিয়েছিলেন, নতুন প্রজন্মকে জানাতেই স্বাধীনতার বিরোধিতাকারী রাজাকারদের নাম প্রকাশের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ১৫ ডিসেম্বর ১০-১৫ হাজার রাজাকারের তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments