আন্তর্জাতিক

পেশাগত অবসাদকে রোগের স্বীকৃতি দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা


সি নিউজ ডেস্ক : অতিরিক্ত কাজের চাপে কর্মক্ষেত্রে অনেকেই তীব্র মানসিক অবসাদে ভোগেন। যার কারণে কর্মীর কাজের দক্ষতা কমে যায়। এ ধরনের সমস্যাকে ‘পেশাগত অবসাদ’ বা ‘বার্নআউট’ বলা হয়।

বিশ্বের বহু মানুষ এ সমস্যায় ভুগলেও এতোদিন তা কোনো আনুষ্ঠানিক রোগ হিসেবে স্বীকৃত ছিলো না। জেনেভায় চলমান ৭২তম (২০-২৮ মে) ওয়ার্ল্ড হেলথ অ্যাসেম্বলিতে ‘বার্নআউট’কে ইন্টারন্যাশনাল ক্লাসিফিকেশন অব ডিজিজের (আইসিডি) তালিকাভুক্ত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ডব্লিউএইচও।

এটি এখন আনুষ্ঠানিকভাবেই একটি স্বাস্থগত সমস্যা। রোগ শনাক্তকরণের ক্ষেত্রে আইসিডিকে একটি বেঞ্চমার্ক হিসেবে ব্যবহার করা হয়। এছাড়া এই তালিকাভুক্ত রোগগুলো স্বাস্থ্য বীমার আওতায় পড়ে।

বার্নআউট রোগ শনাক্তে তিনটি লক্ষণ উল্লেখ করেছে ডব্লিউএইচও। এগুলো হচ্ছে, শক্তি হ্রাস অথবা অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়া, নিজের দায়িত্বের সঙ্গে মানসিক দূরত্ব তৈরি হওয়া এবং পেশাগত দক্ষতা কমে আসা।

সংস্থাটি আরো জানিয়েছে, ‘এখানে অবসাদকে পেশাগত দিক থেকে উল্লেখ করা হয়েছে। যা জীবনের অন্যান্য অংশের অভিজ্ঞতার সঙ্গে মেলানো যাবে না।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আইসিডি তালিকাটি হালনাগাদের পর এটি এখন আইসিডি-১১ হিসেবে পরিচিত হবে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বিশেষজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে গত বছর এর খসড়া তৈরি করা হয়েছিলো। গত শনিবার এ হালনাগাদ তালিকাটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

ডব্লিউএইচওর মুখপাত্র তারিক জাসারভিক সাংবাদিকদের জানান, এই প্রথমবার বার্নআউট শ্রেণীভুক্ত রোগ হিসেবে নাম লেখাল।

Admin

0 Comments

Please login to start comments