পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে বারবার ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী


 

সিনিউজ: বরগুনার আমতলীতে পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে এক স্কুলছাত্রীকে বারবার ধর্ষণ করেছেন এক শিক্ষক। এতে ছাত্রীটি অন্তঃসত্ত্বা পড়লে তাকে চিকিৎসার কথা বলে পটুয়াখালী নিয়ে গর্ভপাত করান শিক্ষক। এ ঘটনায় ছাত্রীর দাদা মামলা করলে শিক্ষক মো. জহিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জানা যায়, কাঁঠালিয়া তাজেম আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. জহিরুল ইসলাম ২০১৫ সালের ২২ জুলাই ওই বিদ্যালয়ে যোগদান করেন। বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করানোর ভয় দেখিয়ে গত ডিসেম্বর মাস থেকে কয়েক দফা ধর্ষণ করেন জহিরুল ইসলাম। এতে ওই ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি ওই ছাত্রী শিক্ষক জহিরুল ইসলামকে তিনি পেটে টিউমার হয়েছে বলে তাকে চিকিৎসার  জন্য পটুয়াখালী নিয়ে গর্ভপাত করান। 

এ ঘটনা জানাজানি হলে জহিরুল ইসলামকে গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা মানববন্ধন করে। পরে গেল এক জুলাই ওই ছাত্রীর দাদা বাদী হয়ে আমতলী থানায় জহিরুল ইসলামকে আসামি করে ধর্ষণ মামলা করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে  শনিবার ১০টার দিকে পুলিশ ওই শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে।

 

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments