আন্তর্জাতিক

পরিস্থিতির উন্নতি, চার বিমানবন্দর চালু পাকিস্তানের


সি নিউজ ডেস্ক  : ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে পাল্টাপাল্টির হামলায় যুদ্ধপরিস্থিতি বিরাজ করছিল। তুমুল উত্তেজনাপূর্ণ অবস্থার মধ্যে দেশের সবকটি বিমানবন্দর বন্ধ করে দিয়েছিল পাকিস্তান।

এর মধ্যে ভারতীয় পাইলটকে মুক্তি দেয়ার পর পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় দেশের চার বিমানবন্দর চালু করেছে দেশটি। বাকি সব বিমানবন্দর সোমবার চালু করার ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান।  

শুক্রবার এভিয়েশন অথরিটির (সিএএ) দেওয়া বার্তায় করাচি আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর, পেশওয়ার আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর, কুয়েত্তা আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর এবং ইসলামাবাদ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর চালুর নির্দেশ দেওয়া হয়।

এর আগে স্থানীয় সময় শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টায় পাকিস্তানের বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষের (সিএএ) নির্দেশে ওই চারটি বিমান বন্দরের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল ফের চালু করা হয়। সেই সঙ্গে বন্দর কর্মকর্তাদের সবাইকে উপস্থিত থাকারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে লাহোর, শিয়ালকোট, মুলতানসহ উল্লেখযোগ্য অন্য বিমান বন্দরগুলো পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আগামী ৪ মার্চ দুপুরে তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু করবে।

পাকিস্তানের পতাকাবাহী এয়ারলাইন্স পিআইএর মুখপাত্র মাসুদ তাজওয়ার দেশটির সংবাদ মাধ্যম ডনকে জানান, শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ‘পিকে থি হান্ড্রেড সেভেনটি’ ফ্লাইটটি করাচি থেকে ইসলামাবাদ পৌঁছেছে। পরে নির্ধারিত আরও তিনটি ফ্লাইট করাচি থেকে জেদ্দা, মদিনা ও দুবাইয়ের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জইশ ই মোহাম্মদ নামের সংগঠনের সদস্যদের হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ সদস্য নিহত হয়। এরপরই এ ঘটনায় পাকিস্তানকে দায়ী করে ভারত। পরে হামলার জবাব হিসেবে পাকিস্তানের অভ্যন্তরে হামলা চালায় ভারত।

এরপরই দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধপরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এমন পরিস্থিতিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি আকাশসীমা বন্ধ করে পাকিস্তান। পাল্টাপাল্টি বিমান হামলার সময় পাকিস্তান ভারতীয় এক পাইলটকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের একদিন পরই পাইলট অভিনন্দনকে মুক্তি দেয় পাকিস্তান।

 

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments