খেলাধুলা

নেইমারের বারবার পড়ে যাওয়ার রহস্য কি!



সি নিউজ : ডাইভিং ফুটবলেরই অংশ। তবে এবারের বিশ্বকাপে নেইমার সেটাকে নিয়ে গেছেন শিল্পের পর্যায়ে। নেইমার এবার কেউ ফাউল করলে পড়ে যান। ব্রাজিলের বিপক্ষে মুখোমুখি হওয়ার আগেই তাই আগুনে ঘি ঢেলে দিলেন মেক্সিকোর ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন আন্দ্রেস গুয়ারডাডো। নেইমার অতিরিক্ত ফাউল করেন ও মাটিতে পড়ে যেতে পছন্দ করেন জানিয়ে তার প্রতি আলাদা নজর রাখতে তিনি ফিফা ও ম্যাচ কর্মকর্তাদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। বিশ্বকাপে ব্রাজিলের প্রথম দুটি ম্যাচে বারবার মাটিতে লুটিয়ে পড়েছেন নেইমার। কয়েক বার ইচ্ছা করে পড়ে গিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে ফাউলের শিকার হয়েছিলেন ১০ বার। দ্বিতীয় ম্যাচে কোস্টারিকার বিপক্ষে সে সংখ্যাটা কমে এসেছে চারে। নিজে চারবার ফাউল করেছেন, আবার ফাউল আদায় করতে ডাইভ দিয়েছেন চারবার। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে কোস্টারিকার বিপক্ষে ম্যাচের শেষদিকে পেনাল্টি বক্সে ইচ্ছে করেই পড়ে গিয়ে পেনাল্টির আবেদন জানান নেইমার। নেইমারের এসব ভাড়ামি রুখতে গুয়ারদাদো ভিডিও সহকারী রেফারির(ভিএআর) দেখতে চান। গুয়ার্ডাডো বলেন, আমরা সবাই নেইমার সম্পর্কে জানি। এটা আমার কিংবা আমাদের বিচার করার দায়িত্ব না। এটা রেফারি ও ফিফাকে দেখতে হবে। যুক্তরাজ্যের দ্যা সান পত্রিকার একটি প্রতিবেদনে বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, একজন প্লেয়ারের শারীরিক ওজনের সর্বনিম্ন এভারেজ ৭২ কেজি। যেখানে – মেসির ওজন ৭০ কেজি। রোনালদোর ওজন ৭৫-৭৬ কেজি। আর নেইমারের মাত্র ৬৪-৬৫ কেজি। তাই হার্ড ট্যাকেলে মেসি রোনালদোর তুলনায় নেইমারের শরীরের প্রতি ব্যালেন্স রাখা কষ্টকর। তার উপর তার শরীরের তিনটি স্থানে ভাঙা। কোমরে ,ডান পায়ের গোড়ায় ও বাম পায়ের রানের গোড়ায়। শরীরের তিন স্থান ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে ডাক্তার বলেছেন, হার্ড ট্যাকেলে নেইমার যাতে শরীরের উপর অতিরিক্ত প্রেশার দিয়ে দাঁড়িয়ে থাকার চেষ্টা না করে। এই কারণেই হার্ড ট্যাকেল করলে নেইমার পড়ে যায়। আর কিছু কিছু মানুষ তো এটাকে ট্রল হিসেবে নিয়ে নিয়েছেন। নেইমারকে নিয়ে গর্ব করা উচিৎ যে সে তিনটা ভাঙা নিয়ে বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে উপস্থিত হয়েছে। সর্বশেষ শুভকামনা নেইমার ও ব্রাজিল দলের জন্য।

Admin

0 Comments

Please login to start comments