রাজনীতি

নির্বাচন অত্যন্ত সুন্দর হয়েছে, ঐতিহ্যের পথে এগিয়েছে ঢাবি: ভিসি


সি নিউজ ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে অত্যন্ত সুন্দর ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট দিয়েছে শিক্ষার্থীরা। তাদের ব্যাপক অংশগ্রহণে ডাকসু তার ঐতিহ্যের পথে আরেকধাপ এগিয়ে গেলো। তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধা আমি অভিভূত হয়েছি। আমাদের তাদের মাধ্যমে উৎসাহিত হচ্ছি। সোমবার ডাকসুর ভোট গ্রহণের শেষপর্যায়ে রোকেয়া হলের সামনে এই মন্তব্য করেন তিনি। যদিও তার এই বক্তব্যের ঘণ্টাখানেক আগেই ডাকসু নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ তুলে ছাত্রলীগ বাদে সব প্যানেলই ভোট বর্জন করে। মধুর ক্যান্টিনে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচন বিষয়ে বিভিন্ন অভিযোগ তুলে ধরেন নেতারা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাম সংগঠনগুলোর জোট প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্য, কোটা আন্দোলনকারীদের বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, স্বতন্ত্র জোট, স্বাধিকার স্বতন্ত্র পরিষদের প্রার্থী ও নেতারা। এছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থীদের অনেকেও উপস্থিত ছিলেন। আলাদা সংবাদ সম্মেলন করে ভোট প্রত্যাখ্যান ও নতুন তফসিল দাবি করেছে ছাত্রদলও। ছাত্রদলের ভিপি প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, তাদের প্যানেলে জিএস প্রার্থীসহ বেশ কয়েজন ছাত্রলীগের হামলার শিকার হয়েছেন। সাধারণ শিক্ষার্থীরা ভোট দিতে পারেনি এবং ছাত্রলীগের ভোট কারচুপির প্রতিবাদে তারা নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে তিনি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে বাম জোটের ভিপি প্রার্থী লিটন নন্দী ভোট সংক্রান্ত বিভিন্ন অনিয়ম তুলে ধরেন। তিনি বলেন, সকালে ভোট শুরুর আগে কুয়েক মৈত্রী হলে বস্তা ভর্তি ব্যালট বাক্স উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন হলে জাল ব্যালট উদ্ধারের অভিযোগ করেন তিনি।
তিনি জানান, রোকেয়া হলে ১ ঘণ্টা পর ভোট শুরু হয়েছে। সেখানে ছাত্রলীগের ভিপি-জিএস প্রার্থীদের উপস্থিতিতে কোটা সংস্কারপন্থী প্যানেলের ভিপি প্রার্থী নুরুল হক নুর, স্বতন্ত্র ভিপি প্রার্থী অরণি এবং মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক পদের প্রার্থী দিপ্তীকে মারধর করা হয়।
বিভিন্ন হলে ভোট দিতে ছাত্রলীগ বাধা দিয়েছে বলে অভিযোগ করেন লিটন নন্দী।
তিনি বলেন, ছাত্রলীগ গেটে দাঁড়িয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের বুথে ঢুকতে দেয়নি। শহীদুলল্লাহ হলের গেট বন্ধ করে রাখে ছাত্রলীগ- এমন অভিযোগও করেন তিনি। জানান, সেখানে ভোট শুরুর পর প্রথম ২ ঘণ্টা পর্যন্ত কেউ ভোট দিতে পারেনি।
সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, আজ মঙ্গলবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস বর্জন কর্মসূচি পালন করা হবে। সংবাদ সম্মেলন শেষে মধুর ক্যান্টিন থেকে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছেন ৪ জোটের নেতাকর্মী ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এরপর ভিসির বাসভবন ঘেরাও করার কথা রয়েছে।

Admin

0 Comments

Please login to start comments