রাজনীতি

নতুন বছরে নতুন করে ভাবতে চান মির্জা ফখরুল


নতুন বছরে নতুন করে ভাবতে চান জানিয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নতুন করে স্বপ্ন দেখতে চাই। আমরা বিশ্বাস করি বাংলাদেশে অতীতের মতো ছাত্রদলের নেতৃত্বেই গণঅভ্যুত্থানের সৃষ্টি হবে। গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা হবে।। তারাই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করবে এবং দেশনেত্রীর মুক্তি হবে।

মঙ্গলবার (৩১ ডিসেম্বর) সকালে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ছাত্রদল নেতাকর্মীদের নিয়ে রাজধানীর শের-ই বাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অন্যায়-অবৈধভাবে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। তাকে জামিনেরও সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। আমরা জানি নেলসন ম্যান্ডেলাসহ অনেক নেতাই দীর্ঘ সময় কারাগারে ছিলেন। তাদের সেই কারাগারে থাকা ব্যর্থ হয় না। দেশনেত্রীর মুক্তির মধ্যে দিয়ে এ জাতি আবার ঘুরে দাঁড়াবে।

সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা আগেও বলেছি এই নির্বাচন কমিশন ও সরকারের অধীনে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। তারপরেও আমরা গণতান্ত্রিক উপায়ে জনগণের কাছে যাওয়ার জন্য এবং আমাদের দাবি দাওয়া জনগণের সামনে তুলে ধরার জন্য নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি।

বিগত বছর ছিল গণতন্ত্র হত্যার বছর। গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নেওয়ার বছর এবং ফ্যাসিবাদের জয়ের বছর। স্বাধীনতার মূল চেতনা গণতন্ত্র। আওয়ামী লীগ যতবার ক্ষমতায় এসেছে গণতন্ত্রকে ততবার হত্যা করেছে। এই বছরে যারা গণতন্ত্রের জন্য সংগ্রাম করেছেন, তারা লাঞ্ছিত হয়েছেন। দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার সাজা বাড়ানো হয়েছে। হাজার হাজার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করা হয়েছে। সাংবাদিকদের নির্যাতন করা হয়েছে।

এসময় ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, সহসভাপতি কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবন, জাকিরুল ইসলাম জাকির, আশরাফুল আলম ফকির লিংকন, হাফিজুর রহমান, যুগ্ম সম্পাদক তানজিল হাসান, ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারীসহ ছাত্রদলের সহস্রাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments