নওগাঁয় ভুল অপারেশনে শিশুর মৃত্যু

নওগাঁয় ভুল অপারেশনে শিশুর মৃত্যু

সি নিউজ, নওগাঁয় : নওগাঁয় গড়ে ওঠেছে ব্যাঙের ছাতার মতো ক্লিনিক। আর এই সব অবিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের দিয়ে অপারেশন করার কারণে ঘঠছে একের পর এক প্রাণহানির ঘটনা। তবুও নজর নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

তারই ধারাবাহিকতায় একটি বে-সরকারী ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল অপারেশনে আল এখলাস (৮) নামের এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এখলাস জেলার আত্রাই উপজেলার দিঘা উত্তর পাড়া গ্রামের শুকবরের ছেলে। এ ঘটনায় ক্লিনিকের মালিক ও কর্মচারীরা ক্লিনিকে তালা ঝুলিয়ে পালিয়ে গেছে। ক্লিনিকে নিহতের স্বজনরা ক্লিনিক ঘেরাও করে রেখেছে।

নিহতের পিতা শুকবর জানান, শনিবার বেলা ৩টার সময় তার ছেলেকে নিয়ে গলায় টনসিল রোগের জন্য শহরের চকএনায়েত মহল্লায় বেসরকারী ক্লিনিক শাহ নার্সিং হোম এন্ড ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নাক, কান ও গলা বিশেষজ্ঞ ডাঃ আসাফুৎদ্দৌলা নিকট দেখায়। ডাক্তারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ওই ক্লিনিকে সাড়ে ৬ হাজার টাকা চুক্তিতে ভর্তি করায় বেলা ৩টার দিকে। টাকা বুঝিয়ে নিয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে অপারেশান করায় ওই ডাক্তার। অপারেশানের পর রোগীর আর জ্ঞান ফিরে নাই।

ডাক্তারকে বললে একটু পরে জ্ঞান ফিরবে বলে বিভিন্ন টালবাহানা করে। পরে ডাক্তার ওই রোগীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে। এ্যাম্বুলেন্সে রোগীকে তুলে দিয়ে ওই ডাক্তার, ক্লিনিকের কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সবাই তালা বন্ধ করে পালিয়ে যায় বলে তিনি জানান।

রাজশাহী মেডিকেল হাসপাতালে রোগীকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার শিশুটিকে মৃত ঘোষনা করেন। তারা মৃত রোগীকে নিয়ে ভোরে ওই ক্লিনিকে এসে দেখে তালাবদ্ধ। নিহতের স্বজনরা ক্লিনিক ঘেরাও করে রাখে। সংবাদ লেখা পর্যন্ত পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে।

নওগাঁ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমিত কুমার কুন্ডু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।