জাতীয়

দেশের ১৪ লাখ প্রতিবন্ধীকে ভাতা দেয়া হবে: প্রধানমন্ত্রী


সি নিউজ ডেস্ক : ১২তম বিশ্ব অটিজম দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, অটিজম আক্রান্তদের অধিকার সুরক্ষিত করতে হবে। এ সময় তাদের বোঝা মনে না করার আহ্বান জানান তিনি।

দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘সহায়ক প্রযুক্তির ব্যবহার, অটিজম বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন ব্যক্তির অধিকার’।মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১২ তম বিশ্ব অটিজম সচেতনতা দিবস ২০১৯ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রতিবন্ধীরা সমাজের বোঝা নয়, সম্পদ। প্রতিবন্ধীরা এবার ২২টি স্বর্ণপদক অর্জন করেছে। তাদের জন্য মিরপুরে ক্রীড়া কমপ্লেক্স করা হচ্ছে। আগামী বাজেটে দেশের ১৪ লাখ প্রতিবন্ধীদের ভাতার আওতায় আনা হবে। 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়-সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী সভাপতি রাশেদ খান মেনন বক্তব্য রাখেন।

সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ। অটিজম ও প্রতিবন্ধীদের বিষয়ে বিশেষ অবদান রাখা ও প্রতিবন্ধীদের কৃতিত্বপূর্ণ কাজের জন্য তিন ক্যাটাগরিতে ১১ জনকে পুরস্কার দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধীদের আঁকা ছবি দিয়ে আমি প্রতিবছর ঈদ কার্ড করি। যাদের ছবি দিয়ে এই কার্ড করি তাদেরকে সম্মানিও দেয়া হয়। প্রতিবন্ধীরা যাতে ভালোভাবে চলতে পারে সে জন্য ট্রাস্টে বৃত্তবানদের সহযোগিতা কামনা করছি।

শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবন্ধী মানুষের অধিকার সুরক্ষায় ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন ২০১৩’এবং ‘নিউরো-ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্ট আইন ২০১৩’প্রণয়ন করা হয়েছে।

দশম জাতীয় সংসদের শেষ অধিবেশনে ‘বাংলাদেশ রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল আইন ২০১৮’ অনুমোদন করা হয়েছে। এছাড়াও প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকারবিষয়ক কর্মপরিকল্পনা ২০১৯ অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, আমার বিশ্বাস, অটিস্টিক শিশু-কিশোরদের সম্ভাবনাগুলোকে চিহ্নিত করে সঠিক পরিচর্যা, শিক্ষা ও স্নেহ-ভালোবাসা দিয়ে গড়ে তোলা হলে; তারা সমাজ ও রাষ্ট্রের জন্য বোঝা না হয়ে অপার সম্ভাবনা বয়ে আনবে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ অটিজমবিষয়ক জাতীয় উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারপারসন আমার কন্যা সায়মা ওয়াজেদের নিরলস প্রচেষ্টায় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অটিজম বিষয়ে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টি হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, প্রতিবন্ধিদের সুরক্ষায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম উদ্যোগ নিয়েছিলেন। খেলাধুলা ও শিক্ষাক্ষেত্রসহ প্রতিবন্ধীদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। এমনকি প্রতিটি বিভাগ ও মেডিকেল কলেজে প্রতিবন্ধী পরিচর্যা কেন্দ্র করা হবে।

এসময় তিন ক্যাটাগরিতে ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের হাতে সম্মাননা তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী। অটিজমে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিসরূপ সম্মাননা পেয়েছেন আরটিভির ‘হাত বাড়িয়ে দিলাম’ অনুষ্ঠানের ক্রিয়েটিভ ডিরেক্টর সৈয়দা মুনিরা ইসলাম।

দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments