বাংলাদেশ

দুই বছরের পরেও দ্রুত দেয়া হবে মিতু হত্যার চার্জশিট


সিনিউজ দুই বছর পার হলেও আলোচিত পুলিশ কর্মকর্তা বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা আক্তার মিতু হত্যাকাণ্ডের তদন্ত শেষ করে আদালতে অভিযোগপত্র দিতে পারেনি পুলিশ। তবে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. কামরুজ্জামান বলছেন, মামলাটি বেশ স্পর্শকতার ও চাঞ্চল্যকর। মামলাটির তদন্ত এখনো চলছে। দ্রুতই মামলাটির চার্জশিট আদালতে জমা দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। ২০১৬ সালের ৫ জুন ভোরে চট্টগ্রাম নগরীর জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুল বাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় খুন হন পুলিশ কর্মকর্তা বাবুলের স্ত্রী মিতু। হত্যাকাণ্ডের পর পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি মামলা করেন বাবুল আক্তার। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর) মো. কামরুজ্জামান আরও বলেন, তদন্ত হচ্ছে একটা চলমান প্রক্রিয়া। তদন্ত শেষ করার জন্য তারিখ ফ্রেম করতে পারি না। যেকোনো মুহূর্তে অনেক তথ্য পাওয়া যেতে পারে। মামলাটি তদন্ত করতে গিয়ে তদন্ত কর্মকর্তা দুইবার করে মিতুর পরিবার ও মিতুর স্বামী বাবুল আক্তারের সঙ্গে কথা বলেছেন। ওই সময় মিতুর বাবা মোশাররফ হোসেন সরাসরি বলেছিলেন বাবুল আক্তার মিতু হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। এখন পর্যন্ত এ মামলায় বিভিন্ন সময়ে সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ।

Admin

0 Comments

Please login to start comments