আন্তর্জাতিক

তিন তালাক দেওয়ায় ভারতে প্রথম এক ব্যক্তি গ্রেপ্তার


সিনিউজ: স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদে তিন তালাক দেওয়ার অভিযোগে ভারতের কেরালা রাজ্যে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এনডিটিভি অনলাইন জানিয়েছে, রাজ্যের কোঝিকোড় এলাকা থেকে শুক্রবার ই.কে. উসাম নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাজ্যসভায় তিন তালাক বিল পাস হওয়ার প্রায় দুই সপ্তাহ পরে এই প্রথম এই আইনের আওতায় কাউকে গ্রেপ্তার করা হলো।

চলতি বছরের ৩০ জুলাই পাস হওয়া বিলটি ‘মুসলিম উইমেন (প্রোটেকশন অব রাইটস অন ম্যারেজ) বিল’ যা ‘তিন তালাক বিল’ নামে পরিচিত। এই বিল অনুযায়ী একই সঙ্গে তাৎক্ষণিকভাবে তিনবার ‘তালাক’ উচ্চারণ করে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটানো ফৌজদারি অপরাধ বলে গণ্য হবে। চিঠিতে তিনবার তালাক লেখা, মুঠোফোনে তালাক বার্তা পাঠানো অথবা ফোনে বলে দেওয়া সবকিছুই অপরাধ বলে গণ্য করা হবে। এভাবে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটানোর অপরাধে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির তিন বছরের কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে। বিবাহ বিচ্ছিন্ন নারী নিজের ও শিশুসন্তানদের ভরণপোষণের জন্য ম্যাজিস্ট্রেটের দ্বারস্থ হতে পারবেন। শিশুসন্তানের ভার কে পাবেন, তা ঠিক করার অধিকার থাকবে ম্যাজিস্ট্রেটের।

মুকাম পুলিশ জানিয়েছে, গত বৃহস্পতিবার উসামের স্ত্রীর করা আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাঁর বিরুদ্ধে আদালতে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়। উসাম বর্তমানে জামিনে রয়েছেন।

ওই নারীর আইনজীবী আনোয়ার সাদিক অভিযোগ করেছেন, উপসাগরীয় অঞ্চলের একটি দেশে বিয়ে করার পর উসাম তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে বিদেশ যান। কিছুদিনের মধ্যে তিনি স্ত্রীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা শুরু করেন। স্ত্রীকে ভারতে ফিরিয়ে এনে আগস্টের ১ তারিখে তাকে তিন তালাক দেন উসাম। তিনি অন্য এক নারীকে বিয়ে করেছেন।

আনোয়ার সাদিক বলেন, আবেদনকারীর স্বর্ণালংকার এখনো ওই ব্যক্তির কাছে রয়েছে। তাকে তালাক দিয়ে অন্য নারীকে বিয়ে করার সময় আর্থিক খোরপোশসহ কোনো প্রাপ্য অধিকারই উসাম বুঝিয়ে দেননি।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments