আন্তর্জাতিক

জামিন পেলেন নাজিব রাজাক


সি নিউজ: মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে জামিন পেয়েছেন দুর্নীতির অভিযোগে আটক সাবেক মালয়েশীয় প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। এর আগে আজ বুধবার সকালে আদালতে তোলার আগে তার বিরুদ্ধে চারটি অভিযোগ গঠন করা হয়। তবে নাজিব তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। খবর স্ট্রেইট টাইমসের। সাবেক এই মালয়েশীয় প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে আস্থাভঙ্গের তিন অভিযোগ ও রাষ্ট্রীয় তহবিল ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বারহাদ (১এমডিবি)-এ ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে। তবে তিনি তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। নাজিবের সাত সদস্যের আইনজীবী টিমের নেতৃত্বে আছেন সিনিয়র আইনজীবী মোহাম্মদ শফি আব্দুল্লাহ। বুধবার সকালে নাজিবকে ওই চার অভিযোগে আদালত তোলার পর নিজেকে নির্দোষ দাবি করে জামিন আবেদন করেন তিনি। পরে আদালত নগদ ১০ লাখ রিঙ্গিতের বিনিময়ে নাজিবের জামিন মঞ্জুর করে। এসময় রাজাকের দুই কূটনীতিক পাসপোর্ট জমা দিতেও আদেশ দেন আদালত। নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তাতে তার সর্বনিম্ন দুই বছর থেকে সর্বোচ্চ ২০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে। একইসঙ্গে বেত্রাঘাত ও জরিমানাও করা হতে পারে। তবে মালয়েশিয়ার আইন অনুযায়ী ৫০ বছরের বেশি বয়স্ক ব্যক্তিদের শাস্তি থেকে বেত্রাঘাত বাদ দেয়া হয়। এ মাসেই তিনি ৬৫ বছরে পদার্পণ করবেন। মালয়েশিয়ার নবনিযুক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল টমি থমাসের নেতৃত্বে ১২ সদস্যের শক্তিশালী টিম সরকারের পক্ষে এই মামলা পরিচালনা করছেন। এদিন নাজিব জামিন চাইলে তিনি সেটির বিরোধিতা করেননি। তবে নগদ ৪০ লাখ রিঙ্গিত ও দুটি মুচলেকার বিনিময়ে যেন নাজিবকে জামিন দেয়া হয় এমন আবেদন জানিয়েছিলেন তিনি। এসময় তিনি নাজিবের পাসপোর্ট হস্তান্তরের জন্য আদালতে আবেদন জানান অ্যাটর্নি জেনারেল। গেলো মে মাসে এক অবিস্মরণীয় জয়ের মাধ্যমে ছয় দশকের বেশি সময় ধরে মালয়েশিয়ায় ক্ষমতা থাকা বারিসান ন্যাশনালের নেতা নাজিবকে পরাজিত করেন মাহাথির মোহাম্মদ। এরপর থেকেই মাহাথির তার এক সময়ের শিষ্য নাজিবের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত শুরু করেন।

Admin

0 Comments

Please login to start comments