দেশজুড়ে

ছেলের নির্যাতনে মায়ের মৃত্যু


পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ছেলের নির্যাতনের শিকার হয়ে আম্বিয়া বেগম (৭০) নামে এক বৃদ্ধা চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

শনিবার (২ নভেম্বর) সকালে উপজেলার তুষখালী ইউনিয়নের জানখালী গ্রামে অমানবিক এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আম্বিয়া বেগম পাঁচ সন্তানের জননী।

স্বজনরা জানান, বৃদ্ধা আম্বিয়া বেগম তার স্বামী হেমায়েত তালুকদার ও ছোট ছেলে শহীদ তালুকদারকে নিয়ে নিজেদের সুপারী বাগানে গিয়েছিলেন সুপারী পাড়ার জন্য। সেখানে সুপারী পাড়া শুরু করলে বাধা দেন তার বড় ছেলে জলিল তালুকদার। একপর্যায় সুপারী গাছের মালিকানা নিয়ে ঝগড়া শুরুহলে জলিল বৃদ্ধ পিতাকে মারধর শুরু করেন। তখন তার মা আম্বিয়া বাঁধা দিলে তিনিও মারপিটের শিকার হন। জলিলের সাথে যুক্ত হন তার স্ত্রী মাহমুদা বেগম ও দুই ছেলে। ঘটনাস্থলেই চেতনা হারিয়ে ফেলেন আম্বিয়া বেগম। তখন তাকে উদ্ধার করে প্রতিবেশি ও স্বজনরা হাসপতালে নিয়ে যান। হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় বেলা সাড়ে চারটার দিকে আম্বিয়া বেগম মারা যান।

এদিকে ঘটনা জানাজানি হলে পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। হত্যাকারী হিসেবে অভিযুক্ত জলিল তালুকদার তার বড় ছেলে। ঘটনার পর থেকেই জলিল তার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পালিয়ে গেছেন।

মঠবাড়িয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুজ্জামান জানান, বৃদ্ধার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments