দেশজুড়ে

চিঠি লিখে গার্মেন্ট মালিকের আত্মহত্যা


সি নিউজ, নারায়নগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গার্মেন্ট কারখানাএনএম ফ্যাশন মালিক আব্দুল মতিন (৪৭) আত্মহত্যা করেছেন। ব্যাংকসহ বিভিন্নজনের কাছে প্রায় আড়াই কোটি টাকা ঋণ থাকায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ

শনিবার সকালে ফতুল্লার মাসদাইর পাকাপুল এবি প্লাজার সপ্তম তলায় নিজ বাসার ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। পরে দুপুর একটায় মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়

নিহত আব্দুল মতিন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে। মতিন মৃত্যুর আগে একটি খাতায় লিখে গেছেনতার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়। ব্যাংকসহ বিভিন্ন লোকের কাছের প্রায় আড়াই কোটি টাকা ঋণ থাকায় তিনি আত্মহত্যা করেছেন। তার বাড়ি-গাড়িসহ সবই আছে। তার ঋণ পরিবার পরিশোধ করে দেবে।

নিহতের স্ত্রী নাদিরা আক্তার রেখা বলেন, শুক্রবার ফ্ল্যাটের আলাদা একটি রুমে ঘুমিয়ে পড়েন মতিন। ভোরে সাহরি খাননি এবং ফজরের নামাজও পড়েননি। কিভাবে কী হয়ে গেল বুঝতে পারছি না। ওনার কত টাকা ঋণ আছে আমাদের কিছুই জানাননি। যদি জানাতেন তাহলে ব্যবস্থা করতাম

নিহতের বড় ভাই নজরুল ইসলাম বলেন, ঋণসহ বিভিন্ন বিষয়ে সে সমস্যায় থাকলেও কখনো কাউকে কিছু বলে না। গত বছরও মতিনের দেড় কোটি টাকার ঋণ আমি পরিশোধ করেছি। তার যদি ঋণ থাকে সেটা আমাকে বললে আমি পরিশোধ করে দিতাম। কেন সে আত্মহত্যা করলো বুঝতে পারছি না

নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( সার্কেল) শরফুদ্দিন জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ঋণের টাকার জন্যই তিনি আত্মহত্যা করেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে

Admin

0 Comments

Please login to start comments