গোপালগঞ্জে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

গোপালগঞ্জে বাড়ছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

সি নিউজ,গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জে ডায়ারিয়ার প্রকোপ দেখা দিয়েছে। জেলা হেডকোয়ার্টারসহ উপজেলার হাসপাতালগুলোতে গত এক সপ্তাহ ধরে ডায়রিয়া রোগীর চাপ বেড়েছে। হাসপাতালের ডায়রিয়া ওয়ার্ডে যে ধারণক্ষমতা আছে, তার থেকে অধিক হারে রোগী থাকায় হাসপাতালের করিডোরেও রোগীদের ভিড় বাড়ছে।

 

গত এক সপ্তাহে গোপালগঞ্জ আড়াই’শ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালসহ কাশিয়ানী, মুকসুদপুর, কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য-কমপ্লেক্সে কমপক্ষে ৪’শ ৬১ ডায়রিয়া রোগী ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ বছরের অধিক বয়সের রোগীর সংখ্যা বেশি। বেশিরভাগ রোগীই দু’তিন দিন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরে গেলেও এখনও পর্যন্ত এসব হাসপাতালে শতাধিক রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। গোপালগঞ্জ আড়াই’শ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে রোগীদেরকে ওয়ার্ডের বেডে ও ফ্লোরে জায়গা সংকুলান না হওয়ায় করিডোরে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মঙ্গলবার দুপুরে গোপালগঞ্জ আড়াই’শ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সিভিল সার্জন ডাঃ তরুণ ম-ল জানিয়েছেন, এই গরমে ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দেয়। তবে বিগত কয়েক বছরের মধ্যে এ বছর ডায়রিয়া বেশি। গত এক সপ্তাহ ধরে হাসপাতালে এ ধরনের রোগীর সংখ্যা বেড়েছে।

শিশুদের তুলনায় বয়স্ক রোগীর সংখ্যাও যথেষ্ট। তাছাড়া, মধুমতি নদীর পানিসহ এখানকার খাবার পানিতেও অতিরিক্ত লবণ রয়েছে, যার প্রেক্ষিতে কমবেশি অনেকেই ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তবে তিনি আশ্বস্ত করে বলেছেন, হাসপাতালে এসব রোগীর পর্যাপ্ত চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। দু’তিন দিনের মধ্যেই সুস্থ হয়ে রোগীরা বাড়ি ফিরে যেতে পারছেন। নিয়মিত বৃষ্টি শুরু হলে পানির লবণাক্ততা কমে আসবে এবং সে সঙ্গে ডায়রিয়ার প্রকোপও কমে আসবে বলে তিনি জানান।