খালে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

খালে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

সি নিউজ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় খালে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজের ৪ দিন পর অবশেষে পাওয়া গেল কিশোর হাসান মিয়ার (১৭) মরদেহ।
বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার উলচাপাড়া কুরুলিয়া খালের ব্রিজের নিচ থেকে ভাসমান অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত হাসান ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর এলাকা ৯নং ওয়ার্ডের নয়নপুরের লিলু মিয়ার ছেলে। হাসান তার বাবার সাথে ইলেক্ট্রিশিয়ানের কাজ করত। তাদের এলাকায় নিজেদের ছোট একটি ইলেক্ট্রনিকের দোকান রয়েছে।
হাসানের খালাতো ভাই সোহেল জানান, হাসান গত শনিবার দুপুরে সহপাঠীদের সাথে বাড়ির পাশে কুরুলিয়া খালে (এন্ডারসন খাল) গোসল করতে যায়। খালটি কচুরি পানায় ভরা। কচুরি পানার একটি পরিষ্কার অংশে হাসান ঝাঁপ দেয় গোসল করতে। কিন্তু ঝাঁপ দেয়ার অনেক পরেও সহপাঠীরা হাসানের কোনো খোঁঁ পায়নি।
পরে হাসানকে খুঁজে না পাওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসী খালে নেমে কচুরি পানা পরিষ্কার করে ডুবিয়ে হাসানকে তলøাশি করে। পরবর্তীতে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে উদ্ধার অভিযানে যোগ দেন। কুরুলিয়া খালে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ২ দিন তলøাশি চালিয়ে হাসানের কোনো সন্ধান পায়নি।
৪ দিন পর বুধবার সকালে স্থানীয়রা হাসানের মরদেহ কুরুলিয়া খালের উলচাপাড়া ব্রিজের নিচে ভেসে উঠতে দেখে পুলিশকে খবর দেয় বলেও জানান তিনি।
সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) জিয়াউল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে আমরা এসেছি। মরদেহটি জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হবে।