লাইফস্টাইল

কম ঘুম মানেই কম পুষ্টিগ্রহণ


সি নিউজ ডেস্ক : অনেকেই আছেন, যাদের ঘুম পর্যাপ্ত হয় না। আবার অনেকেই আছেন, যারা দৈনিক প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও মিনারেল গ্রহণ করেন না। সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, এ অপর্যাপ্ত ঘুম ও পুষ্টিগ্রহণ না করার বিষয় দুটি পরস্পরের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। খবর মেডিকেল এক্সপ্রেস।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাপ্তবয়স্কদের স্বাস্থ্য তথ্য নিয়ে পরিচালিত ন্যাশনাল হেলথ অ্যান্ড নিউট্রিশন এক্সামিনেশন সার্ভের (এনএইচএএনইএস) তথ্যের ভিত্তিতে গবেষণাটি পরিচালিত হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, যারা প্রতি রাতে পর্যাপ্ত সময় ধরে ঘুমান না, তাদের প্রতিদিন ভিটামিন এ, ডি, বি১, ম্যাগনেসিয়াম, নিয়াসিন, ক্যালসিয়াম, জিংক ও ফসফরাসের মতো প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণ গ্রহণের মাত্রাও অন্যদের তুলনায় কম।

প্রসঙ্গত, যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের পক্ষ থেকে একজন মানুষের রাতে একটানা কমপক্ষে ৭ ঘণ্টা ঘুমানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

উল্লিখিত গবেষণায় আরো দেখানো হয়, অপর্যাপ্ত ঘুম ও প্রয়োজনীয় মাত্রার তুলনায় কম পুষ্টিগ্রহণের বিষয়টি পুরুষের তুলনায় নারীর ক্ষেত্রে বেশি ক্ষতিকর। এক্ষেত্রে খাবারের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পুষ্টিগ্রহণ করা না গেলে সাপ্লিমেন্ট গ্রহণের পরামর্শ রয়েছে।

গবেষণা নিবন্ধের প্রধান লেখক ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফার্মাভিট এলএলসির ডিরেক্টর অব নিউট্রিশন সার্ভিস চিওমা ইকোন্তে।

তিনি বলেন, অপর্যাপ্ত ঘুমের সঙ্গে অপর্যাপ্ত মাত্রায় নির্দিষ্ট কিছু পুষ্টিগ্রহণের বিষয়টির সম্পর্কযুক্ততার বিষয়টি নিয়ে অনেক প্রমাণই রয়েছে। নতুন গবেষণাটি সে প্রমাণের পাল্লাকে কেবল আরেকটু ভারী করে তুলল।

তিনি আরো বলেন, আমাদের গবেষণা থেকে পাওয়া তথ্য বলছে, যাদের ঘুম অপর্যাপ্ত হয়, তারা খাদ্য ও সাপ্লিমেন্টেশনের মাধ্যমে পুষ্টিগ্রহণের মাত্রা বাড়িয়ে উপকৃত হতে পারেন।

Admin

0 Comments

Please login to start comments