অতিরিক্ত রুটি খেলে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে


সি নিউজ ডেস্ক : অনেকেই মনে করেন ভাতের বদলে রুটি খেলে শরীর বেশি সুস্থ থাকে। পেটকে পরিষ্কার রাখার জন্যেও অনেকেই গম ও আটার রুটি খান। তবে বেশি রুটি খেলেও হতে পারে সমস্যা।

গমে থাকে অতিরিক্ত গ্লুটেন যা সহজে হজম হতে চায় না। তাই হজমের সমস্যা হতে পারে। এই গ্লুটেন থেকেই অনেক সময় পেটের নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়। আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিকাল নিউট্রিশন-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাউরুটি খাওয়ার পর শরীরে পরিপাকে বেশ কিছু পরিবর্তন হয়। এর প্রভাবে শরীরের বিশেষ কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যায় যা মানসিক অবসাদ বা ডিপ্রেশনের মতো সমস্যাকে বহুগুণ বাড়িয়ে দেয়।

একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, গমে থাকা গ্লুটেন নামের উপাদান হজম হতে অনেকটাই সময় নেয়। আর এই গ্লুটেন হজম হওয়া মানেই বাড়তে শুরু করে রক্তে শর্করার মাত্রা। ফলে ইনসুলিনের ক্ষরণও বেড়ে যায়। দিনের পর দিন এমনটা চলতে থাকলে টাইপ ২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বহুগুণ বৃদ্ধি পায়। সেই কারণেই যাদের ডায়াবেটিস আছে চিকিৎসকেরা তাদের গমের তৈরি খাবার এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

হৃদরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, গমের তৈরি খাবার খেলে কোলেস্টেরলের সমস্যাও বৃদ্ধি পেতে পারে। তাছাড়া, গমের তৈরি খাদ্য উপাদান ত্বকের বয়স বাড়িয়ে দিতে পারে। ত্বক কুচকে যায়, ত্বকে বলিরেখা দেখা দিতে পারে।

এছাড়াও গমের তৈরি খাবার বেশি পরিমানে খেলে অকালে চুল ঝরে গিয়ে টাক পড়ে যাওয়ার সমস্যাও দেখা দিতে পারে। একাধিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, আটা-ময়দা দিয়ে তৈরি কোনো খাবার খেলে খাওয়ার পর শরীরে শর্করার মাত্রা বৃদ্ধি পেয়ে ওজন ও উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা বাড়তে শুরু করে।

সিনিউজ ডেস্ক

0 Comments

Please login to start comments